অতীত রেকর্ড ভেঙে ২০২৩ সালে ১০ কোটি ২৯ লাখ কেজি চা উৎপাদন

বিশ্বের সবচেয়ে দামি চা সিলেটে উৎপাদন করছে লন্ডন টি এক্সচেঞ্জ' নামের এই চায়ের উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান। প্রতি কেজি চায়ের দাম ১৮ কোটি টাকা! প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করা হয় সিলেটের চা বাগানে বিশেষভাবে তৈরি ‘দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি’ (সোনার বাংলা চা)।

অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে ২০২৩ সালে দেশের চা-বাগানগুলোতে ১০ কোটি ২৯ লাখ কেজি চা উৎপাদন হয়েছে। আর চলতি বছরের মে মাস পর্যন্ত ১৪টি দেশে প্রায় ১০ লাখ কেজি চা রপ্তানি হয়েছে।

চা দিবসকে ঘিরে সোমবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশ চা বোর্ডের উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার চতুর্থবারের মতো ‘জাতীয় চা দিবস’ উদযাপন এবং দ্বিতীয়বারের মতো ‘জাতীয় চা পুরস্কার’ দেওয়া উপলক্ষে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

চা দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘স্মার্ট বাংলাদেশের সংকল্প, রপ্তানিমুখী চা শিল্প’। চা দিবস উপলক্ষে আজ চা মেলার আয়োজন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই মেলার উদ্বোধন করেন এবং চা মেলা পরিদর্শন করেন। চা দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সিলেটের চা-বাগানের চা লন্ডনের ‘লন্ডন টি এক্সচেঞ্জ’ কম্পানির প্রতিনিধিরা হস্তান্তর করেন।

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, ২০২৩ সালে ইউরোপ, এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের ১৩টি দেশে প্রায় ১০ লাখ ৪০ হাজার কেজি চা রপ্তানি করা হয়েছে, যা আগের বছরগুলোর তুলনায় প্রায় ৩৩ শতাংশ বেশি।

প্রতি কেজি চায়ের দাম ১৮ কোটি টাকা! শুনতে অবাক লাগলেও সত্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করা হয় সিলেটের চা বাগানে বিশেষভাবে তৈরি ‘দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি’ (সোনার বাংলা চা) নামে এই চা।
শুনতে অবাক লাগলেও সত্য। প্রতি কেজি চায়ের দাম ১৮ কোটি টাকা! প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করা হয় সিলেটের চা বাগানে বিশেষভাবে তৈরি ‘দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি’ (সোনার বাংলা চা)।

চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, গোল্ডেন বেঙ্গল টি, যার এক কেজির মূল্য ১৮ কোটি টাকা। যেটি বাংলাদেশের সিলেট অঞ্চলের চা-বাগান থেকে তৈরি হচ্ছে।

প্রতি কেজি চায়ের দাম ১৮ কোটি টাকা! শুনতে অবাক লাগলেও সত্য। আগামীকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করা হয় সিলেটের চা বাগানে বিশেষভাবে তৈরি ‘দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি’ (সোনার বাংলা চা) নামে এই চা।বিশ্বের সবচেয়ে দামি চা সিলেটে উৎপাদন করছে লন্ডন টি এক্সচেঞ্জ’ নামের এই চায়ের উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান।

কম্পানির লোকজন প্রধানমন্ত্রীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে এই চা হস্তান্তর করেন। তারপর এগুলো বিভিন্ন দেশের রানি ও রাজাদের কাছে দেওয়া হবে।

চা মেলায় দেশের শীর্ষ প্রতিষ্ঠানগুলোর চা প্রদর্শন করা হয়। রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় চা দিবস উপলক্ষে তথ্যচিত্র প্রদর্শন ও আলোচনাসভা শেষে দেশের চা-শিল্পে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ আটটি ক্যাটাগরিতে ‘জাতীয় চা পুরস্কার ২০২৪’ প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বিজয়ীদের হাতে পুরস্কারের ট্রফি ও সনদ তুলে দেন। চা দিবসের শুভ উদ্বোধন এবং জাতীয় চা পুরস্কার প্রদানের পর প্রধানমন্ত্রী চা মেলা পরিদর্শন করেন। দেশে বর্তমানে ১৬৮টি বড় চা-বাগান এবং প্রায় আট হাজার ছোট চা-বাগান রয়েছে।