বঙ্গোপসাগরের মৎস্য আহরণে পাশে থাকবে জাতিসংঘ

বঙ্গোপসাগর ও উপকূলবর্তী এলাকার মানুষের মৎস্য ও সামুদ্রিক প্রাণিসম্পদ আহরণের মাধ্যমে জীবনমান উন্নয়নে পাশে থাকবে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও)। এরই অংশ হিসেবে এফএও বাংলাদেশকে কারিগরি ও আর্থিক অনুদান সহায়তায় দেবে।

সোমবার (২২ মে) রাজধানীর শেরেবাংলা নগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) এবং এফএও প্রতিনিধিদের মধ্যে ‘সাসটেইনেবল ম্যানেজমেন্ট অব ফিশারিজ মেরিন লিভিং রিসোর্স অ্যান্ড দেয়ার হ্যাবিটেটস ইন দ্য বে অব বেঙ্গল রিজন ফর দ্য বেনিফিট কোস্টাল স্টেস অ্যান্ড কমিউনিটিস’ শীর্ষক প্রকল্প চুক্তি সই হয়।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে ইআরডি সচিব শরিফা খান এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত এফএওর প্রতিনিধি রবার্ট ডগলাস সুংসন চুক্তিতে সই করেন।

প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য- টেকসই ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বঙ্গোপসাগর ও উপকূলবর্তী এলাকায় মৎস্য ও সামুদ্রিক প্রাণিসম্পদ এবং এদের বিচরণস্থলের পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষা এবং সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকায় বসবাসরত জনগোষ্ঠীর জীবন-জীবিকা ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সহযোগিতা করা।

এ প্রকল্পে মোট অনুদান সহায়তার পরিমাণ ৫ দশমিক ৫ লাখ মার্কিন ডলার। প্রকল্পটি মৎস্য অধিদপ্তর বাস্তবায়ন করবে। এতে বন অধিদপ্তর সহযোগী সংস্থা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে।

১৯৭৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত এফএও বাংলাদেশে ৩৫৪টি প্রকল্পে কারিগরি গ্রান্ট সহায়তা দিয়েছে। কৃষিখাত, পরিবেশ ও অন্যান্য সংশ্লিষ্ট খাতের উন্নয়নে গুরুত্বপূ ভূমিকা পালন করে আসছে সংস্থাটি।

Views: 7