তাসকিন ঝড়ে লণ্ডভণ্ড আইরিশরা

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে সবচেয়ে রঙিন সময় কাটাচ্ছেন বাংলাদেশ দলের পেসাররা। ওয়ানডে সিরিজে একদিকে ব্যাটাররা রানের সড় সংগ্রহ গড়ে আইরিশ ব্যাটারদের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছিলেন আরেকদিকে টাইগার দলের বোলাররা বিশেষ করে পেসাররা তাদের আটকে দিয়ে জয় তুলে নিচ্ছিলেন।

সোমবার (২৭ মার্চ) এবার সফরকারীদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও দেখা যায় একই চিত্র। প্রথমে বাংলাদেশ ব্যাট করতে নেমে ১৯ দশমিক ২ বলে ২০৭ রানের সংগ্রহ গড়ে। বৃষ্টির কারণে খেলায় বিরতি পড়ে। এরপর খেলা ৮ ওভারে কমিয়ে এনে আইরিশদের টার্গেট দেয়া হয় ১০৪ রান। ইসিংসটিতে তাসকিন আহমেদ প্রথম ওভারেই ৭ রান খরচে ৩ উইকেট তুলে আইরিশদের আটকাতে সহায়তা করেন। আইরিশ-টাইগার টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে তিনি ২ ওভার বল করে ১৬ রান খরচে ৪ উইকেট তুলেন।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচ শুরু হয় আইরিশদের ইনিংস দিয়ে। আগ্রাসী শুরু এনে দেন আইরশ ওপেনার পল স্টার্লিং ও রস অ্যাডেয়ার। ৮ ওভারে ১০৪ রানের তাড়ায় প্রথম ওভারেই ১৮ রান তুলে নেন আইরিশ ব্যাটাররা। দ্বিতীয় ওভারেও তাদের মারমুখি ব্যাটিং দেখা যায়। প্রথম বেকথ্রু আসে হাসান মাহমুদের করা তৃতীয় ওভারে। রস অ্যাডেয়ার বোল হয়ে বিদায় নেয়ার পরও কমেনি আয়ারল্যান্ডের রানের গতি। আইরিশরা চাপে পড়েন তাসকিন আহমেদের করা চতুর্থ ওভারে। প্রথম ওভারেই বোল্ডের শিকার হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন লর্কান টাকার। ওভারটিতে রানের গতি থামিয়ে রেখে চতুর্থ বলে আরেকটি উইকেট তুলে নেন এই টাইগার পেসার।

এবার বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরে যান পল স্টার্লিং। এর পরের বলেই জর্জ ডাকরেল শামিম হোসেনের হাতে সীমানায় ধরা পড়ে গোল্ডেন ডাক মেরে মাঠ ছাড়েন। তাকে বিদায় করে হ্যাটট্রিক চান্স তৈরি করেন তাসকিন। তবে পরের বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে তাসকিনের তান্ডব থামান ডিলানি। নিজের দ্বিতীয় ওভারে বল করতে এসে প্রথম বলেই তিনি বিদায় করেন হ্যারি ট্যাকটরকে। শেষ পর্যন্ত টাইগার বোলারদের তান্ডবে ২২ রানে পরাজিত হয় আয়ারল্যান্ড।

Views: 6