‘উন্নয়ন সাফল্যে আওয়ামী লীগের যথেষ্ট জনসমর্থন আছে’

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের কর্মকাণ্ড নিয়ে সমালোচনা যেমন আছে, তেমনি অনেক সাফল্যও আছে। আওয়ামী লীগ সরকারের এখনো যথেষ্ট জনপ্রিয়তা আছে। এই সরকার দেশের জন্য আরও সাফল্য আনতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের ফরেন পলিসি ম্যাগাজিনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন ওয়াশিংটন ডিসিভিত্তিক শীর্ষস্থানীয় নীতি গবেষণা প্রতিষ্ঠান উইলসন সেন্টারের দক্ষিণ এশিয়া ইনিশিয়েটিভের পরিচালক মাইকেল কুগেলম্যান। সাম্প্রতিক তার সাক্ষাৎকার নেন আন্তর্জাতিকবিষয়ক প্রবীণ সাংবাদিক মার্ক লিওন গোল্ডবার্গ। সাক্ষাৎকারটি ফরেন পলিসির পডকাস্টে প্রকাশিত হয়।

তিনি বলেন, যদি কেউ দাবি করে বাংলাদেশে খারাপ কিছু হচ্ছে, জবাবে শুধু এটাই বলা যায় যে এর বিপরীতে সন্ত্রাস দমন ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে সরকারের যথেষ্ট সাফল্যও রয়েছে এবং জনগণের তাদের সমর্থন করার কারণও রয়েছে। কুগেলম্যান বলেন, উন্নয়ন নিয়ে বাংলাদেশের অর্জন আসলে গোটা অঞ্চলেই অনুকরণীয়। ‘তাদের উন্নয়ন এখন বৈশ্বিক এক সাফল্যের গল্প।’

আলাপচারিতায় ২০১০ সালের দিকে বাংলাদেশ সফরের কথা স্মরণ করে মাইকেল কুগেলম্যান বলেন, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার তার মেয়াদের শুরুর দিকে স্বাস্থ্য অবকাঠামোতে যে বিনিয়োগ করেছে তা স্পষ্টত কাজে লেগেছে। সব তথ্য-উপাত্তই বলবে, স্বাস্থ্য সুবিধা, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে। দারিদ্র্যের হার কমেছে। তবে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে গণতান্ত্রিক দিক বিবেচনায় দেশটি পেছনে পড়েছে।

সাক্ষাৎকারে স্থান পায় ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ ও বাংলাদেশে এর প্রভাব। কুগেলম্যান বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সৃষ্ট মুদ্রাস্ফীতি ও জ্বালানির ঊর্ধ্বগতি কারণে (বাংলাদেশ) সরকার বিদ্যুৎ ও জ্বালানির সুষ্ঠু সরবরাহ নিশ্চিত করতে চাইছে।

কুগেলম্যান বলেন, বিদ্যুৎ সরবরাহে বিঘ্ন ঘটায় দেশটির অর্থনৈতিক অগ্রগতির জন্য বড় এক ধাক্কা। আর এই সুযোগেই বিরোধীদল রাজপথে নেমে আন্দোলন করেছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের দুর্নীতির চিত্র ও অর্থনৈতিক খাতের অনিয়মিত বিরোধী দলগুলোর জন্য আরেকটি সুযোগ। এই বিষয়গুলো নিয়েই প্রশ্ন তুলছে বিরোধী দল। তবে এই আন্দোলন আসলে গণআন্দোলন নয়, বরং দলীয় রাজনৈতিক আন্দোলন বলে মত দেন তিনি।

সাংবাদিক মার্ক লিওন গোল্ডবার্গ গণতান্ত্রিকভাবে বাংলাদেশের পিছিয়ে পড়ার উদাহরণ ও কারণ জানতে চান। জবাবে বিশ্লেষক মাইকেল কুগেলম্যান বলেন, ‘ধারাবাহিকভাবে বিষয়টি দেখলে বুঝতে সহজ হবে। আমি মনে করি, এটি মনে রাখা উচিত যে ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার আগে বর্তমানে বিরোধী দল বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল তখন একই ধরনের কৌশল নিয়েছিল। তখনো দমন-পীড়ন, গুম ছিল।’

কুগেলম্যান বলেন, ‘আজ যা যা ঘটছে তার অনেক কিছুই বিএনপি ক্ষমতায় থাকার সময়ও ঘটেছে। আমি মনে করি, এটি স্মরণ রাখা গুরুত্বপূর্ণ।’