মেট্রোরেলে যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের লাগবে না টিকিট

মেট্রোরেলের টিকিট নিয়ে বিস্তারিত নির্দেশনা প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ। এতে বলা হয়েছে, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধারা বৈধ পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে বিনা ভাড়ায় ভ্রমণ করতে পারবেন। এছাড়া মেট্রোরেলে যাত্রা করার জন্য দুই ধরনের টিকিট বা পাস পাওয়া যাবে। এর মধ্যে একক যাত্রার টিকিট বা কার্ড স্টেশনের বাইরেও নেয়া যাবে না।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধারা বৈধ পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে বিনা ভাড়ায় ভ্রমণ করতে পারবেন। আর সব ধরনের যাত্রীরা এমআরটি পাস বা র‌্যাপিড পাস ব্যবহার করে প্রতি যাত্রায় ১০ শতাংশ ছাড় পাবেন।

শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ার সুবিধা পাচ্ছেন না। তিন ফুট পর্যন্ত উচ্চতার শিশু অভিভাবকের সঙ্গে বিনা ভাড়ায় ভ্রমণ করতে পারবে এবং বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন ব্যক্তিরা পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে একক যাত্রার টিকিটে ১৫ শতাংশ ছাড় পাবেন।

ঢাকার গণপরিবহনে যুক্ত হওয়া প্রথম এ মেট্রোরেল আপাতত চলবে উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত। প্রথমদিকে মেট্রোরেল সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চার ঘণ্টা চলবে। উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশে চলাচলের পথে কোথায় থামবে না ট্রেন, বিরতিহীনভাবে চলবে।