ইজেডে বিনিয়োগে আগ্রহী সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ীরা

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নিয়ন্ত্রণাধীন অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোয় জিটুজি বা একক ভিত্তিতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ীরা। সোমবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বেজা কার্যালয়ে এক সভায় সিঙ্গাপুর বিজনেস ফেডারেশন এবং এন্টারপ্রাইজ সিঙ্গাপুরের নেতারা এ আগ্রহের কথা জানান।

সোমবার বেজার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, বাংলাদেশে বিনিয়োগের বিষয়ে যাচাই ও আলোচনার জন্য এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বংলাদেশে নিযুক্ত সিঙ্গাপুরের হাইকমিশনার ডেরেক লো দেশটির প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান শেখ ইউসুফ হারুন। বেজার শীর্ষ কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সিঙ্গাপুর বিজনেস ফেডারেশনের নির্বাহী পরিচালক সু উই-চিয়েহ, এন্টারপ্রাইজ সিঙ্গাপুরের আঞ্চলিক পরিচালক সাবরিনা হো, বাংলাদেশ বিজনেস চেম্বার অব সিঙ্গাপুরের সভাপতি মোহাম্মদ শহীদুজ্জামান প্রমুখ অংশ নেন।

সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা কর অবকাশ, বিনিয়োগের প্রকৃতি এবং এর সঙ্গে সম্পর্কিত ব্যয় সম্পর্কে জানতে চান। তাঁরা পর্যটন খাতে এবং একক ও গভর্নমেন্ট টু গভর্নমেন্ট (জিটুজি) ভিত্তিতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

সিঙ্গাপুরের হাইকমিশনার ডেরেল লো বলেন, বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুরের মধ্যে চমৎকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক রয়েছে। দুই দেশের অর্থনৈতিক বন্ধন আরও দৃঢ় করতে তাঁর সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সিঙ্গাপুর এবং সেখানকার বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানগুলো এ লক্ষ্যে সমন্বিতভাবে কাজ করছে। ২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিঙ্গাপুর সফরের কথা উল্লেখ করে

তিনি বলেন, বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে প্রয়োজনীয় বিনিয়োগের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী আন্তরিকভাবে সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ী সংগঠনগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন।
বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান শেখ ইউসুফ হারুন সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়ে বলেন, দেশে এখন বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ বিরাজ করছে।

Views: 4