আইটিতে সফল উদ্যোক্তা রনি খান

পড়াশোনার পাশাপাশি ২০০৮ সালে ইউটিউব মার্কেটার হিসেবে কাজ শুরু করেছিলেন। গুগলে বাংলাদেশের ম্যাপ সংযুক্তকারী দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন ম্যাপ মেকার হিসেবেও। কঠোর পরিশ্রম শেষে এখন তিনি একজন সফল আইটি উদ্যোক্তা। বলা হচ্ছে যুক্তরাজ্য প্রবাসী রনি খানের কথা।

দেশের বাইরে থাকলেও দেশের মানুষের কথা চিন্তা করে গড়ে তুলেছেন আইটি বিষয়ক প্রতিষ্ঠান ‘ইজি অ্যান্ড র‍্যাপিড’। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তার নিজ জেলা এবং দেশের তরুণদের প্রশিক্ষণ দিয়ে স্বাবলম্বী করে তুলতে চান।

রনি জানান, তিনি ২০০৮ সাল থেকে ইউটিউব মার্কেটার হিসাবে কাজ করছেন। গুগলে বাংলাদেশের ম্যাপ সংযুক্তকারী দলের অন্যতম সদস্যও ছিলেন। ২০০৯ সালে ইতালিতে পারি জমান। সেখানে তিনি ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে ইউটিউব এবং গুগলের সঙ্গে কাজ করছেন। ২০২০ সালে অ্যাক্রিডিটিং অ্যান্ড অ্যাসেসমেন্ট ব্যুরো অফ লন্ডন, যুক্তরাজ্য থেকে বিজনেস ম্যানেজমেন্ট-এর ওপর বিশেষ ডিপ্লোমা করেছেন।

তিনি বলেন, আমি যুক্তরাজ্যে বসবাস করলেও সব সময় দেশের কথা ভাবি। আমার আইটি প্রতিষ্ঠানটি দেশেই করা। এজন্য বছরের আট-নয় মাস বাংলাদেশেই থাকি। ‘ইজি অ্যান্ড র‍্যাপিড’-এর মাধ্যমে আমার আমার জেলার তথা সমগ্র দেশের তরুণদের স্বাবলম্বী করতে চাই। আমি সেভাবেই কাজ করছি। ইতোমধ্যে আমার প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় শতাধিক মানুষ স্বাবলম্বী হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ‘ইজি অ্যান্ড র‍্যাপিড’ প্রতিষ্ঠানটি প্রযুক্তিগত পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান হলেও এই প্রতিষ্ঠানের অধীনে বেশ কিছু ব্যবসায়িক প্রকল্প রয়েছে, তার ভেতর উল্লেখযোগ্য হলো, ইজি অ্যান্ড র‍্যাপিড সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি লিমিটেড এবং সিটি শপি ডট কম নামে ই-কমার্সসহ বেশ কিছু প্রকল্প। ভবিষ্যতে মাদারীপুর জেলায় ইন্টারনেট সেবাদানের প্রকল্প চালু করার কথা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির।

সফল এই উদ্যোক্তা ১৯৮৫ সালের ১৩ ডিসেম্বর মাদারীপুর সদর উপজেলার কুলপদ্বিতে জন্ম গ্রহণ করেন।