কক্সবাজারে হচ্ছে ১৫০ কোটি টাকার হাইটেক পার্ক

১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে কক্সবাজারে হাই-টেক পার্ক স্থাপনের কাজ চলছে। প্রায় ৮ দশমিক শূন্য ৭ একর জমিতে এই পার্ক গড়ে উঠলে এখানে প্রায় ৩ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণ পাবেন ১ হাজার মানুষ।

কক্সবাজারে হাই-টেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। শনিবার কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে হাই-টেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর উপলক্ষ্যে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

তিনি বলেছেন, আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ হবে সোনার বাংলার প্রতিচ্ছবি। ১৩ বছর আগে ডিজিটাল অর্থনীতির আকার ছিল মাত্র ২৬ মিলিয়ন ডলার। বর্তমানে তা ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলারে উন্নিত হয়েছে। আশা করছি আগামী ২০২৫ সালে আইসিটি রপ্তানি হবে ৫ বিলিয়ন ডলার। আর কর্মসংস্থান হবে ৩০ লাখ প্রশিক্ষিত দক্ষ জনশক্তির। এ লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে সরকার। কক্সবাজারে হাই-টেক পার্ক স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল। এ সময় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ, প্রকল্প পরিচালক এ কে এ এম ফজলুল হক।

এর আগে সকাল ৯টায় কক্সবাজারের রামু দক্ষিণ মিঠাছড়িতে হাই-টেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ সময় কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।