মানুষ যেন সুবিচার থেকে বঞ্চিত না হয়: প্রধান বিচারপতি

আদালতে বিচারপ্রার্থীদের সুবিচার পাওয়ার প্রতি লক্ষ রাখতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

রোববার রাজবাড়ী জেলা আইনজীবী সমিতির এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “মানুষ যেন সুবিচার থেকে বঞ্চিত না হয় সে দিকে লক্ষ রাখতে হবে। একটা কেস যদি ২০-৩০ বছর পেন্ডিং থাকে তাহলে মানুষ আমাদের প্রতি আস্থা রাখবে কেন? এদেশে সুবিচার পাওয়া যায়, বিচার পাওয়া যায়, এটা তারা ভাববে কেন?”

বিচার বিভাগের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরিয়ে আনা এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের সবার দায়িত্ব বলে তিনি স্মরণ করিয়ে দেন।

টাকার অভাবে যেন মানুষ সুবিচার থেকে বঞ্চিত না হয় সে দিকেও লক্ষ রাখার আহ্বান জানান বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি।

প্রধান বিচারপতি আরও বলেন, “আমি প্রধান বিচারপতি হিসেবে যোগদান করার পরপরই বলেছি, প্রজাতন্ত্রের মালিক জনগণের ট্যাক্সের টাকায় আমাদের বেতন হয়। তাই তাদের প্রতি সুবিচার করতে হবে।”

তিনি সবাইকে সময়মতো অফিসে আসার বিষয়ে সচেতন হওয়ারও আহ্বান জানান। “সকাল ৯টা বাজার ৫ মিনিট আগে অফিসে আসতে হবে। এক্ষেত্রে আইনজীবীদেরও সহযোগিতা করতে হবে।”

দুপুরে জেলা আইনজীবী সমিতি আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে হাইকোর্টের বিচারপতি এসএম কুদ্দুস জামানকেও সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে এসএম কুদ্দুস জামান বলেন, “রাজবাড়ীতে বিচারক সংকটের কারণে অনেক মামলা দীর্ঘদিন ধরে বিচারাধীন আছে। সব সমস্যার সমাধান করা হবে।”

সম্প্রতি রাজবাড়ী আদালতে কয়েকজন বিচারক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ী জেলা ও দায়রা জজ রুহুল আমিন, জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান, পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এটিএম মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক বিজন বোস, সাবেক সভাপতি স্বপন সোম ও অ্যাডভোকেট অভিজিৎ সোম।