প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টে আবেদন তামান্নার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরামর্শে এক পায়ে জাদু দেখানো অদম্য মেধাবী শিক্ষার্থী তামান্না আক্তার নুরা বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টে আবেদন করেছেন।

১৬ ফেব্রুয়ারি যশোরের জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খানের মাধ্যমে আবেদনটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার সুযোগ ও সহায়তা চেয়ে গত ২৪ জানুয়ারি চিঠি লিখেছিলেন তামান্না। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভিডিওকলে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার বোন শেখ রেহানা। সে সময়ে প্রধানমন্ত্রী তাকে স্বপ্ন পূরণের জন্য বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টে আবেদনের পরামর্শ দেন।

এরপর জেলা প্রশাসনের পক্ষে ঝিকরগাছা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ডা. নাজিব হাসান তামান্নার বাসায় গিয়ে তার আবেদন গ্রহণ করেন। এ বিষয়ে তামান্না বলেন, আমার স্বপ্ন পূরণে পাশে থাকায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমার অশেষ কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা।

যশোরের জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান বলেন, তামান্নার স্বপ্ন পূরণে পাশে দাঁড়িয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দুই কন্যা। ফলে তার স্বপ্ন পূরণে আর কোনো বাধা থাকবে না।

ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া আলীপুরের রওশন আলী ও খাদিজা পারভীন শিল্পী দম্পতির তিন সন্তানের মধ্যে তামান্না সবার বড়। জন্মের সময় দুই হাত ও একটি পা ছিল না তার। তিনি শুধু এক পা নিয়েই বাঁকড়া ডিগ্রি কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এবার এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছিলেন। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত ফলাফলে এসএসসির মতো এইচএসসিতেও জিপিএ ৫ পেয়েছেন তিনি। একই ফল করেছিলেন পিইসি ও জেএসসিতেও।