বাদাম চাষে আশাতীত ফলণে কৃষকের মুখে হাসি

পঞ্চগড়ে বাদাম চাষে এই মৌসুমে আশাতীত ফলনের সম্ভাবনা। ভালো দাম পেলে এবার চাষীরা অধিক লাভোবান হবে বলে আশাবাদী। পঞ্চগড় জেলায় বোদা ও দেবীগঞ্জ দুই উপজেলায় এবার বাদাম আশাতীত ফলন হয়েছে। জমি থেকে বাদাম তোলার সময় প্রায় হয়ে আসছে।

বাদাম তোলার পর বাদামের গাছ শুকানোর পুরোদমে আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে এ অঞ্চলে প্রায় ৬ হাজার ৫ শত ৮০ হেক্টর জমিতে বাদাম উৎপাদন সম্ভাবনা রয়েছে। এ অঞ্চলের হাটবাজারে প্রচুর পরিমানে বাদাম আমদানী হয়ে থাকে। চড়া দামে বাদাম বিক্রি করতে পারলে চাষীরা মহাখুশি হবে।

প্রতিমৌসুমের শুরুতে প্রতিমন বাদাম বিক্রি হয় ৩২০০ থেকে ৩৫০০ টাকা দরে বিক্রি করে বাদাম চাষীরা। গত বছর মৌসুমের শেষে বাদামের দাম বেড়ে দাড়িয়েছিল প্রতিমন ৪০০০ টাকা। পঞ্চগড় জেলায় বাদাম সংরক্ষের জন্য আলাদা কোন সরকারি ব্যবস্থা নেই বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাদাম চাষীরা।

আগামীতে বাদামের দাম বাড়তে পারে এমন আশায় অনেক চাষী ও ব্যবসায়ী বাদাম কিনে গুদাম জাত করতে শুরু করেছিলেন। পঞ্চগড় জেলার কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সূত্রে জানা যায় পঞ্চগড় জেলায় প্রায় ৪ উপজেলায় চলতি রবি মৌসুমে প্রায় মোট ৬৫৮০ হেক্টর জমিতে বাদাম চাষের সকল চাষীরা বাদামের ভালো ফলন হওয়ায় খুশি।

তাই প্রতি বছরে পঞ্চগড়ে বাদাম চাষে কৃষকরা আগ্রহী। বিশেষ করে বোদা উপজেলায় বাদাম চাষে কৃষকরা আগ্রহী। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে বাদাম চাষীরা ফলন ভালো পেয়ে ও বাজারে দাম ভালো পাওয়ায় পঞ্চগড় জেলার কৃষকরা জানান আগামীতে আমরা আরো ২/১ বিঘা বাদাম বেশী চাষ করার আশা করছি।

এভাবে পঞ্চগড় বাদাম চাষ অধিক মাত্রায় বৃদ্ধি পাচ্ছে, এবার আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় বাদামের ফলন খুব ভালো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাদাম চাষীরা এবং দেশের সব জেলার বাদামের চাহিদা মিটাবে বাদাম চাষীরা।

Views: 27