এখন কেউ আমাকে ফকির বলে না

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার খোতেজা বেওয়া। ১০ বছর আগে নদীভাঙনে সব হারিয়ে নিঃস্ব হন। দিনমজুর স্বামীর সামান্য আয়ে চলে না সংসার। সন্তানরাও দেখেন না বৃদ্ধ মা-বাবাকে। বেঁচে থাকার তাগিদে অসহায় খোতেজা বাধ্য হয়ে বেছে নেন ভিক্ষাবৃত্তি। সাত বছর ভিক্ষা করেন। অপরের দয়া-দাক্ষিণ্যে বেঁচে থাকার অভিশপ্ত জীবন ভালো লাগে না তার। এমন সময় তার পাশে দাঁড়ায় সরকারি সংস্থা পল্লী কর্মসহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ)। সংস্থার ‘সমৃদ্ধি’ কর্মসূচির আওতায় ঋণ দেওয়া হয় তাকে। ঋণের টাকায় দুটি গরু কেনেন খোতেজা। গরুর দুধ বিক্রি করে দিনে আয় করেন ২৫০ টাকা। কিছু টাকা দিয়ে হাঁস-মুরগি পালন করেন। আস্তে আস্তে দিন বদলায় তার। দুটি থেকে এখন চারটি গাভী হয়েছে। আয়ও বেড়েছে। স্বাবলম্বী হয়েছেন তিনি। এখন আর ভিক্ষা করেন না খোতেজা। কারও কাছ থেকে ‘ফকির’ ডাক শুনতে হয় না তাকে।

১০ বছর আগের এই গল্প গতকাল রোববার নিজের মুখে শোনান খোতেজা। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে গতকাল থেকে শুরু হয়েছে পিকেএসএফ আয়োজিত উন্নয়ন মেলা। এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানের মঞ্চে নিজের অনুভূতি

প্রকাশ করেন তিনি। অশ্রুসিক্ত খোতেজা আবেগতাড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘আমাকে এখন আর কেউ ফকির বলে ডাকে না। এলাকার সবাই সম্মান করে।’

গতকাল পিকেএসএফের সাত দিনের এ উন্নয়ন মেলা উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল মুহিত। কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন।

অনুষ্ঠানে আরও অনেক সুবিধাভোগী তাদের জীবনের সফলতার গল্প তুলে ধরেন। তাদেরই একজন খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলার কলেজছাত্রী উখিচিং মারমা। নিজে লেখাপড়া করেন। পাশাপাশি সেখানকার গরিব পরিবারের ২৫ শিশুকে শিক্ষা দেন। এ কাজ করে তিনি গর্বিত বলে জানান।

পিকেএসএফের বিভিন্ন কর্মসূচিতে যুবসমাজকেও নানাভাবে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার বড়তলার বাসিন্দা আকিব মাহবুব নামের এক তরুণ জানান, বিভিন্ন ধরনের সেবাধর্মী কাজ, দুস্থদের সহায়তাসহ এলাকার যুবকরা একসঙ্গে কাজ করছে। আয় বৃদ্ধিমূলক কর্মকাণ্ডে যুবকদের সম্পৃক্ত করতে ঋণ ও প্রশিক্ষণের দাবি জানান তিনি। নারায়ণগঞ্জের রোকনউদ্দিন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ইশরাত জাহান জানায়, আলোকিত সমাজ চায় তারা।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ছোট্ট শিশু সোহানা আক্তার শপথবাক্য পাঠ করে। মানবমর্যাদা প্রতিষ্ঠা, দারিদ্র্য বিমোচনসহ নিজ নিজ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ দু’জন উন্নয়নকর্মীকে সম্মাননা দেওয়া হয়। তারা হলেন- ফকির আবদুল জব্বার ও আবুল হাসিব খান। পিকেএসএফের সভাপতি ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় সংস্থার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আবদুল করিম বক্তব্য রাখেন।

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সরকারি-বেসরকারিসহ মোট ৯০টি প্রতিষ্ঠানের ১৩৩টি স্টল এ মেলায় স্থান পেয়েছে। এসব মেলায় দারিদ্র্য জনগোষ্ঠীর উৎপাদিত পণ্য প্রদর্শিত হচ্ছে। জানা গেছে, বর্তমানে সারাদেশে ৫২ হাজার এনজিও থাকলেও পিকেএসএফের সদস্যভুক্ত প্রতিষ্ঠান ২২৭টি। এসব সংস্থার মাধ্যমে এক কোটি ২৭ লাখ দরিদ্র পরিবারকে চার হাজার কোটি টাকা ঋণ দেওয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের মূল লক্ষ্য দারিদ্র্য বিমোচন করা। সে লক্ষ্য অর্জনে আমরা সফল হয়েছি। তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর দেশে গরিব মানুষ ছিল শতকরা ৭০ ভাগ। তা ক্রমান্বয়ে কমে বর্তমানে দাঁড়িয়েছে সাড়ে ২৪ শতাংশ। এটি বড় অর্জন উল্লেখ করে মুহিত আরও বলেন, এখনও মোট জনসংখ্যার তিন কোটির বেশি মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করে। তবে যেভাবে আমরা এগোচ্ছি, তাতে ২০২৪ সালের মধ্যে দেশ থেকে দারিদ্র্য দূর করা সম্ভব।

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, দারিদ্র্য বিমোচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার যেসব কর্মসূচি নিয়েছে, তা আর কোনো সরকার করতে পারেনি। তিনি আরও বলেন, যারা সরকারের কাছ থেকে টাকা নিয়ে প্রতিষ্ঠান করে বড় হয়েছেন, তারাই এখন সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলছেন।

পিকেএসএফের চেয়ারম্যান কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, শুধু ক্ষুদ্রঋণ বিতরণ করে দারিদ্র্য নির্মূল করা যাবে না। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি) অর্জন করতে হলে বহুমাত্রিকতায় যেতে হবে। এ জন্য প্রতিবন্ধী, হাওরবাসী, পরিচ্ছন্নতাকর্মীসহ সমাজের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী, যাদের জীবনে উন্নয়নের ছোঁয়া এখনও লাগেনি, তাদের দিকে নজর দিতে হবে।

পিকেএসএফের এমডি আবদুল করিম বলেন, ক্ষুদ্রঋণের পাশাপাশি মানবমর্যাদা প্রতিষ্ঠায় কাজ করছেন তারা।

সরকারি সংস্থা পিকেএসএফ তার অধীন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে (এনজিও) কম সুদে ঋণ দেয়। পাশাপাশি সংস্থার নিজস্ব বেশ কিছু কর্মসূচি আছে, যেগুলোর মাধ্যমে উদ্যোক্তা তৈরি করা হয়। ‘সমৃদ্ধি’ পিকেএসএফের এমনই একটি কর্মসূচি। এর মাধ্যমে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবেশসহ নানামুখী জনকল্যাণ কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে। ‘সমৃদ্ধি’ কর্মসূচির আওতায় ৮২৫ ভিক্ষুক স্বাবলম্বী হয়েছেন বলে জানা গেছে।