ইলিশ থেকে স্যুপ ও নুডলস বাকৃবি গবেষকের সাফল্য

স্বাদে ও পুষ্টি উপাদানে ইলিশ বিশ্বে একটি জনপ্রিয় মাছ। কিন্তু এতে ওমেগা-৩ অসম্পৃক্ত ফ্যাটি অ্যাসিড থাকায় নোনা ইলিশ ছাড়া অন্য কোনো সহজ উপায়ে বেশি দিন সংরক্ষণ করা যায় না। আবার এ অসম্পৃক্ত ফ্যাটি অ্যাসিড বাদ দিলে মাছের মূল স্বাদও নষ্ট হয়ে যায়। এ সকল দিক ও স্বাদ অক্ষুণ্ন রেখে ইলিশ থেকে স্যুপ ও নুডলস্ উদ্ভাবনে সফলতা পেয়েছেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মত্স্যবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এ.কে.এম. নওশাদ আলম ও তার সহযোগীরা। যা দীর্ঘদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করে রাখা যাবে। ইলিশ মাছের এ সংরক্ষণ পদ্ধতি বিশ্বে প্রথম বলে তিনি দাবি করেছেন। ওয়ার্ল্ড ফিশ সেন্টারের ইকোফিশ প্রকল্প এ ইলিশ পণ্য উদ্ভাবন ও বাজারজাতকরণ গবেষণায় আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছে। ড. নওশাদ আলম বলেন, অনেকের মতে ইলিশ পৃথিবীর সবচেয়ে সুস্বাদু মাছ। ইলিশ মাছে প্রচুর চর্বি পাওয়া যায়। আর এ চর্বিতে রয়েছে ওমেগা-৩ অসম্পৃক্ত ফ্যাটি অ্যাসিড যা মানুষের রক্তে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমিয়ে উপকারী কোলেস্টেরলের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে হূদরোগের ঝুঁকি কমে এবং দেহ সু্স্থ, সবল ও সতেজ রাখে।
তিনি বলেন, ইলিশের দাম বেশি বলে বর্ষাকাল ছাড়া বছরের অন্য সময় সাধারণ মানুষ এটা তেমন খেতে পারে না। বর্তমান সরকার ইলিশ থেকে সারা বছর ঘরে রেখে খাওয়ার মতো, সস্তা, অবিকল কাঁটাবিহীন ইলিশ পণ্য উত্পাদনের ওপর মত্স্য বিভাগকে নির্দেশনা প্রদান করেছে। এ লক্ষ্যে প্রায় দেড় বছরের অধিক সময় ধরে নিরলস প্রচেষ্টায় ইলিশ মাছের স্বাদ ও গন্ধকে অপরিবর্তিত রেখে ইলিশ-স্যুপ ও নুডুলস্ তৈরি করা সম্ভব হয়েছে।
সংরক্ষণ পদ্ধতি সম্পর্কে ড. নওশাদ বলেন, মাছের কিমা, মাথা, নাড়ি-ভুঁড়ি ও ডিম থেকে আলাদাভাবে ফ্রিজে সংরক্ষযোগ্য ছোট ব্লক আকৃতির কিউব তৈরি করা হয়। ১ কেজি ইলিশ থেকে ২৫০টি ব্লক তৈরি করা যায়। একটি ব্লক দিয়ে ৭০ গ্রাম নুডলস্ ও অথবা ১৩০ মিলি স্যুপ তৈরি করা সম্ভব। এতে ইলিশের আমিষ, অসম্পৃক্ত ফ্যাটি অ্যাসিড, অন্যান্য পুষ্টি উপাদান ও ভিটামিনের কোনো ঘাটতি হবে না। ইকোফিশ প্রকল্পের সহায়তায় ভারগো ফিশ এ্যান্ড এগ্রো প্রসেস লিমিটেড শিগগিরই দেশব্যাপী এগুলো বাজারজাত করবে। প্রতি প্যাকেট নুডলস বা স্যুপের খুচরা বাজার মূল্য পড়বে ২০-২৫ টাকা।
এ বিষয়ে মত্স্যবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. শুভাষ চন্দ্র চক্রবর্তী বলেন, এই ইলিশ স্যুপ ও ইলিশ নুডলস্ রপ্তানি করা গেলে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন সম্ভব হবে।

Views: 41