সেরা তিনে ঐতিহ্যবাহী কারমাইকেল কলেজ

রংপুর উত্তর জনপদের একটি জেলা। স্বল্পোন্নত এই জেলাতে বিগত এক’শ এক বছর যাবত্ জ্ঞানের প্রদীপ হয়ে আলো ছড়াচ্ছে কারমাইকেল কলেজ। উত্তরবঙ্গের কলেজগুলোর মধ্যে “কারমাইকেল কলেজ” শ্রেষ্ঠতম কলেজ বলে বিবেচিত। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক অদ্বিতীয় নিদর্শন এই কলেজ। শ্যামল বৃক্ষরাজি শোভিত সৌন্দর্য সত্যিই নজরকাড়ার মতো। দীর্ঘ এক’শ বছর ধরে যেন উত্তরবঙ্গের বিশাল জনপদের সকল প্রদীপ হয়ে দাঁড়িয়ে আছে ‘কারমাইকেল কলেজ’ রংপুর।

প্রায় ৩৪ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে এ প্রতিষ্ঠানে। সারাদেশে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতাভুক্ত সরকারি ও বেসরকারি কলেজে স্নাতক (সম্মান) বিষয় চালু আছে। কারমাইকেল কলেজও এর মধ্যে একটি। নাচ-গান, কবিতা, নাটক ও বিভিন্ন বিতর্ক প্রতিযোগিতায় কৃতিত্ব দেখিয়েছে। এগুলোর পাশাপাশি পড়াশোনাতেও পিছিয়ে নেই রংপুর কারমাইকেল কলেজ। বিগত এক’শ বছরে এর অনেক প্রমাণ দিয়েছে এই কলেজটি। এক’শ এক বছরেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। এক’শ এক বছরে পদার্পণ করে কলেজটি উপহার দিলো অন্যতম শ্রেষ্ঠ কলেজের সম্মান। প্রত্যেকবারের ন্যায় এবারও প্রকাশিত হয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের র্যাংকিং তালিকা। এতে তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে রংপুরে অবস্থিত উত্তরবঙ্গের অন্যতম সুনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কারমাইকেল কলেজ। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোর অনার্স ও মাস্টার্স বিষয়ে ২০১৭ সালের স্কোরের ভিত্তিতে প্রকাশিত র্যাংকিং তালিকায় ৬৪.০৫ নম্বর নিয়ে তৃতীয় স্থানে জায়গা করে নিয়েছে কারমাইকেল কলেজ রংপুর।

সেরা তিনে জায়গা করে নিয়ে কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীর উত্ফুল্ল মনোভাব ও ভালো ফলাফল অর্জনে নির্দ্বিধায় আগ্রহ বাড়িয়ে তুলছে কলেজটির শত বছরের ধরে রাখা এই স্থান ও ঐতিহ্য। কলেজে কর্মরত শিক্ষক ও বিভিন্ন সহাকারীবৃন্দ আনন্দিত ও সম্মানিত বোধ করছেন সেরা তিনে নিজেদের কলেজকে পেয়ে। কারমাইকেল কলেজের এই বিশাল প্রাপ্তির আনন্দ, উচ্ছ্বাস ও গৌরব উত্তরবঙ্গের প্রত্যেকটি মানুষের। উত্তরবঙ্গের প্রতিটি প্রান্ত থেকে অজ্ঞতা, অশিক্ষা, স্বাক্ষরহীনতার অন্ধকার দূর করে আলোয় আলোকিত করবে আলোকিত বাগিচা কারমাইকেল কলেজ এমনটি সবার প্রত্যাশা।