১২০ কিলোমিটার সড়কের উন্নয়নকাজ বাস্তবায়ন

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) ঠাকুরগাঁওয়ের আওতায় ২০১৬-১৭ অর্থবছরে প্রায় ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ১২০ কিলোমিটার সড়কের উন্নয়নকাজ বাস্তবায়ন করা হয়েছে। এ কাজ করতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট সড়কের সেতু ও কালভার্টেরও উন্নয়ন হয়েছে, যা এ অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থায় দারুণ অগ্রগতি এনেছে বলে দাবি সংশ্লিষ্টদের।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, জেলার হরিপুর, পীরগঞ্জ, বালিয়াডাঙ্গী, রানীশংকৈল ও সদর উপজেলায় এ ১২০ কিলোমিটার সড়কের উন্নয়নকাজ করা হয়েছে। এ সময় সেতু নির্মাণ করা হয়েছে ২২০ মিটার। এছাড়া অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সাতটি প্যাকেজে ১৯টি বসতবাড়ি নির্মাণ করা হয়েছে। চার উপজেলায় নির্মাণ করা হয়েছে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স। আর এগুলো বাস্তবায়নে জেলার শতাধিক ঠিকাদারের অধীনে কাজ করেছেন প্রায় পাঁচ লাখ শ্রমজীবী মানুষ।
জানা যায়, এসব উন্নয়নকাজ বাস্তবায়নের ফলে প্রান্তিক মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হয়েছে। সহজেই তারা তাদের উত্পাদিত পণ্য পরিবহন করতে পারছেন। তবে জেলায় এখনো ৩ হাজার ৭৪৩ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা পাকাকরণের কাজ বাকি রয়েছে। এসব রাস্তা পাকাকরণ সম্পন্ন হলেই এ অঞ্চলে ব্যবসা-বাণিজ্য অধিকতর প্রসার লাভ করবে, যা বদলে দেবে স্থানীয়দের জীবনমান।
এলজিইডি ঠাকুরগাঁও জেলা অফিসের তথ্যমতে, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৮০ কিলোমিটার সড়কের উন্নয়নকাজ বাস্তবায়ন করা হয়েছিল। কিন্তু ২০১৬-১৭ অর্থবছরে এ পরিমাণ ১২০ কিলোমিটার, যা গত অর্থবছরের তুলনায় অনেক বেশি। আর ২০১৭-১৮ অর্থবছরে সড়ক উন্নয়নকাজের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১৩০ কিলোমিটার।
এ ব্যাপারে এলজিইডি ঠাকুরগাঁওয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী কান্তেশ্বর বর্মণ জানান, বর্তমান সরকারের সময়ে যোগাযোগ ব্যবস্থার প্রসার ঘটছে। সরকারের আন্তরিকতার কারণেই এ জেলার বেশির ভাগ রাস্তা পাকা করা হয়েছে। আগামীতেও এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

Views: 15