পোশাক কারখানায় সংস্কারে অগ্রগতি

তৈরি পোশাক খাতে চলমান সংস্কারে গতি বেড়েছে। জুলাই মাসে উত্তর আমেরিকার ক্রেতা জোট অ্যালায়েন্সের তত্ত্বাবধানে থাকা রেকর্ড ২৬ কারখানার শতভাগ ত্রুটি সংশোধন হয়েছে। তিন বছর আগে ত্রুটি সংশোধনের কাজ শুরু হওয়ার পর সংশোধিত কারখানার সংখ্যা ছিল মাত্র ৯২। অপর ক্রেতাজোট ইউরোপের অ্যাকর্ডভুক্ত কারখানার সংস্কার চলছে দ্রুতগতিতে। এদিকে জাতীয় কর্মপরিকল্পনার অধীনে (এনপিএ) থাকা কারখানাগুলোর সংস্কার কাজ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শেষ করতে সপ্তাহব্যাপী মালিকদের সঙ্গে বৈঠক করবে সরকারের পক্ষে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর (ডিআইএফই)। আগামী সপ্তাহে ঢাকা ও চট্টগ্রাম অঞ্চলের কারখানা মালিকদের সঙ্গে পৃথকভাবে বৈঠক করবেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু। যত দ্রুত সম্ভব কারখানাগুলোকে ত্রুটিমুক্ত করতে চায় সরকার।
উদ্যোক্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সময়মতো সংস্কার শেষ না করা গেলে দীর্ঘ সময় মার্কিন ও ইউরোপের দুই ক্রেতা জোটের উপস্থিতি এবং তাদের খবরদারি থেকে মুক্তি পেতে উদ্যোক্তারা এখন মরিয়া। নিরাপদ কর্মপরিবেশ নিশ্চিত করতে এসে শ্রম অধিকার নিয়ে জোট দুটির সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড তাদের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করেন তারা। গত রোববার রাতে বিজিএমইএর বিশেষ জরুরি সভায় সাধারণ উদ্যোক্তারা বলেছেন, কোনোভাবেই অ্যাকর্ডের মেয়াদ বৃদ্ধি মেনে নেওয়া হবে না। ত্রুটি সংশোধন বাকি থাকার কারণ দেখিয়ে অ্যাকর্ড এবং অ্যালায়েন্স যাতে অতিরিক্ত সময় থাকতে না পারে সে উদ্দেশ্যে সংস্কার কর্মপরিকল্পনায় (ক্যাপ) উলি্লখিত সময়ের মধ্যে ত্রুটি সংশোধন করতে চান তারা।
বিকেএমইএর সাবেক প্রথম সহসভাপতি এবং এমবি নিটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ হাতেম সমকালকে বলেন, সংস্কার কাজ বাকি থাকার মতো কোনো ছুতোয় ক্রেতা জোট দুটি যেন মেয়াদ বাড়াতে না পারে সে ব্যাপারে সতর্কতা থেকেই মালিকরা এখন যেভাবেই পারছেন সংস্কার কাজ দ্রুত শেষ করার চেষ্টা করছেন। যদিও অ্যাকর্ড নিত্য নতুন শর্ত যুক্ত করছে। কারণ, প্রথম দিকে অ্যাকর্ডকে স্বাগত জানালেও এখন তারা অতিষ্ঠ। বিজিএমইএর সিনিয়র সহসভাপতি ফারুক হাসান সমকালকে বলেন, ক্যাপ অনুযায়ী সময়মতো ত্রুটি সংশোধন করতে চান তারা। এ কারণেই শেষ দিকে এখন সংশোধনের হার বাড়ছে।
গত জুলাই মাসে ২৬টিসহ মোট ১১৮টি কারখানার শতভাগ ত্রুটি সংশোধন হয়েছে বলে গতকাল অ্যালায়েন্সের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। এ প্রসঙ্গে অ্যালায়েন্সের কান্ট্রি ডিরেক্টর জেমস এফ মরিয়ার্টি বলেন, ত্রুটি সংশোধনের কাজকে অগ্রাধিকার দেওয়ার মাধ্যমে মালিকরা প্রমাণ করেছেন প্রতিটি শ্রমিকের নিরাপত্তা পাওয়ার অধিকারের প্রতি তাদের শ্রদ্ধা রয়েছে।

Views: 23