কোম্পানি আইন সংস্কারের কাজ চলছে

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, কোম্পানি আইন (১৯৯৪) যুগোপযোগী করতে সংস্কারের জন্য কাজ চলছে। যেখানে আইসিএসবির সুপারিশকে প্রাধান্য দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে আইনমন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনাও হয়েছে।

আজ শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) এর ২০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন।

ICSB.jpg

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি খুব দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের কোম্পানিগুলোতে আইসিএসবির সদস্যা অত্যন্ত দক্ষতার সাথে পেশাগত দায়িত্ব পালন করছেন। আইনের প্রয়োজনীয় সংস্কার ও প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার মান বাড়িয়ে এখানকার সদস্যরা আরও অবদান রাখতে পারবে বলে মনে করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বাণিজ্য সচিব শুভাশীষ বোস বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে আইসিএসবি, আইসিএমএবি, আইসিএবির সদস্যরা আলাদাভাবে অবদান রাখছে। তাদের পেশাগত দায়িত্বের মাধ্যমে আজ করপোরেট জগতে অনেক পরিবর্তন এসেছে। ফলে কোম্পানিগুলোতে সুশাসন পরিপালনে ভূমিকা রাখছে।

এর আগে কোম্পানি আইন ১৯৯৪ এর সংস্কার বিষয়ে এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। বাণিজ্য সচিব শুভাশীষ বোসের সভাপতিত্বে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইসিএসবির সভাপতি মো. সানাউল্লাহ।

তিনি কোম্পানি আইন সংস্কারের বিষয়ে বেশ কিছু সুপারিশ উপস্থাপন করেন।

এর মধ্যে স্বল্প সময়ের মধ্যে (২৪ ঘণ্টা) নতুন কোম্পানি আইন গঠন করা। যেখানে কোম্পানির মূলধন হবে ৫ কোটি টাকার বেশি; সেখানে বাধ্যতামূলকভাবে কোম্পানিতে ১ জন কোম্পানি সচিব নিয়োগ করা।

কোম্পানিতে কমপ্লায়েন্স নিশ্চিত করতে সেক্রেটারিয়েট অডিট করার বিধান রাখার বাধ্যবাধকতা আরোপ করা। সরকারি কোম্পানিগুলোকে অন্য কোম্পানির মতো মনে করে অভিন্ন কমপ্লায়েন্স মান বজায় রাখা।

নিয়মিত ফাইলিং করা। নন ফাইলিং বা ভুল ডকুম্যান্টসগুলো সতর্কতার সাথে সমাপ্ত করা। বিলম্বিত ফাইলিংগুলোকে শাস্তির আওতায় আনা।

হাইকোর্টের নির্ভরতা কমানোর লক্ষে ৪ সদস্য বিশিষ্ট ১টি কোম্পানি ল’ ট্রাইব্যুনাল গঠন করা। ভবিষ্যতে উন্নয়নের জন্যে কোম্পানি আইন পরিমার্জনকে যুগান্তকারী পরিমার্জন হিসেবে নেওয়া। কোম্পানি আইন কর্তৃক যথাসম্ভব প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে সহজীকরণকে অনুমোদন দেওয়া।

এছাড়া তিনি আইসিএসবির কার্যক্রমের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন অনুষ্ঠানে। এসময় প্রতিষ্ঠানটির সদস্যারা উপস্থিত ছিলেন।