দেশের প্রথম তরুণ উদ্যোক্তা বাণিজ্য মেলা হচ্ছে চট্টগ্রামে

সব তরুণ উদ্যোক্তাকে একই প্ল্যাটফর্মে আনতে দেশে প্রথমবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘তরুণ উদ্যোক্তা বাণিজ্য মেলা’। তরুণ উদ্যোক্তাদের সংগঠন জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) চিটাগাং কসমোপলিটন চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়াম-সংলগ্ন মাঠে (আউটার স্টেডিয়াম) এই মেলার আয়োজন করছে। আগামী ১৮ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই মেলা চলবে।

তরুণ উদ্যোক্তাদের মধ্যে কানেক্টিভিটি বাড়ানো, তরুণদের ব্যতিক্রমী ও উদ্ভাবনী উদ্যোগগুলোকে পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে বাস্তবায়ন করাই এই মেলার মূল লক্ষ্য। ১৫ দিনব্যাপী এই মেলায় এক লাখ দর্শনার্থী আশা করছে আয়োজকরা। গত শুক্রবার একান্ত সাক্ষাত্কারে এসব আকাঙ্ক্ষার কথা জানালেন জেসিআই চিটাগাং কসমোপলিটনের সভাপতি জসীম আহমেদ।

জসীম আহমেদ আরো বলেন, ‘এই মেলার মাধ্যমে একজন তরুণ উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার গল্প, তাদের সফলতার কাহিনী শোনাব। আর তরুণদের মধ্যে পারস্পরিক যোগাযোগ (কানেক্টিভিটি), নলেজ শেয়ারিং বা অভিজ্ঞতা বিনিময় ও প্রশাসনিক সহযোগিতা এবং উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার সম্ভাব্য প্রতিবন্ধকতাগুলো তুলে ধরব।’

জসীম আহমেদ বলেন, ‘ধরেন এক তরুণের এক কোটি টাকা আছে, আরেকজনের একটি ব্যতিক্রমী আইডিয়া আছে—দুইয়ের সমন্বয় ঘটিয়ে উদ্যোক্তা হওয়ার সুযোগ মিলবে এই মেলায়।’

জসীম আহমেদ বলেন, বিশ্বের যত ব্যতিক্রমী উদ্ভাবনী চিন্তা সবই তরুণদের মেধা থেকে এসেছে। বিল গেটস তার প্রমাণ। কিন্তু দেশের সেই কোটি তরুণকে নিয়ে বিশেষ কোনো আগ্রহ সরকারের নেই।

জসীম আহমেদ বলেন, নারীদের বাদ দিয়ে যেমন দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়, তেমনি দেশের বিপুল তরুণকে বাদ রেখে কোনো কর্মপরিকল্পনা উন্নয়ন সফলকাম হবে না। তিনি বলেন, বিনা অভিজ্ঞতায় কম সুদে ব্যাংকগুলো ঋণ দিলেও তরুণ উদ্যোক্তাদের ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম। অথচ এই তরুণদের যদি সরকার একটু সহযোগিতার হাত বাড়ায় তাহলে দেশে অর্থনৈতিক বিপ্লব সম্ভব।

ম্যাফ শুজ লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক জসীম আহমেদ বলেন, ‘এই মেলায় আমরা সফল ১০ তরুণ উদ্যোক্তাকে সম্মাননা জানাব। তাদের সফল হয়ে ওঠার গল্প শোনাব। আর এই গল্প শুনতে আসা চট্টগ্রামে সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই হাজার শিক্ষার্থীকে বিনা মূল্যে প্রবেশ টিকিট দিয়ে অংশগ্রহণ করাব। আমাদের টার্গেট ১৫ দিনের এই মেলায় এক লাখ লোক প্রবেশ করবে। আমরা চাইব এর বেশির ভাগ যাতে তরুণ হয়।’

মেলা আয়োজনের প্রস্তুতি তুলে ধরে জসীম আহমেদ বলেন, ‘ভারত কিংবা দক্ষিণ এশিয়ায় আমরা তরুণদের আয়োজনে ও তরুণ উদ্যোক্তাদের অংশগ্রহণে এই ধরনের মেলা আয়োজনের খবর শুনিনি। ফলে সেদিক থেকে একটি গর্বের বিষয় এই মেলা আয়োজন।’

জসীম আহমেদ বলেন, প্রথম হিসেবে এবারের মেলাতে সম্পূর্ণ নতুন ২৬টি স্টল আসবে, যারা এর আগে কখনো কোনো মেলায় অংশ নেয়নি। এর মধ্যে তথ্য-প্রযুক্তি, সেবা খাত, শিল্প খাত, সার্ভিসভিত্তিক, কনজ্যুমার প্রডাক্টসসহ বিভিন্ন খাতের স্টল নিয়ে আসা প্রতিষ্ঠানগুলোর সবাই তরুণ উদ্যোক্তা। মেলার ৪৪টি স্টল এবং ছয়টি প্যাভিলিয়নের প্রায় সবই ইতিমধ্যে বুকিং হয়ে গেছে।

মেলা সফল করতে জেসিআই চিটাগাংয়ের পুরো টিম কাজ করছে জানিয়ে জসীম আহমেদ বলেন, মেলাকে সফল করতে চট্টগ্রামের ছয়টি স্থানে ব্যাপক প্রচারণা শুরু হয়েছে। মেলায় ১০ টাকার প্রবেশ টিকিটে র‌্যাফল ড্র রাখা হয়েছে, যার প্রথম পুরস্কার ১০০ সিসি মোটরসাইকেলসহ ২০টি পুরস্কার। এ ছাড়া বিতরণকৃত লিফলেটের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে জেতার সুযোগ রয়েছে প্রথম পুরস্কার এলইডি টিভিসহ ২০টি পুরস্কার।