আধুনিক সমাজ গড়ার উদ্যোগ ১০ যুবকের

দশের লাঠি একের বোঝাÑ এ বিশ্বাস সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভার কাঞ্চন ভারতচন্দ্র উচ্চবিদ্যালয় থেকে পাস করা ১০ যুবক গড়ে তোলেন ‘আমরা কাঞ্চন পৌরবাসী’ নামে একটি সংগঠন। ২০১৪ সালের অক্টোবরে যাত্রা শুরু করা সংগঠনটি রক্তদান, বৃক্ষরোপণ, মাদকবিরোধীসহ বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমের জন্য কাঞ্চন পৌরসভা ছাড়াও আশপাশের ইউনিয়নে বেশ সুনাম অর্জন করেছে। বর্তমানে এ সংগঠনের সদস্য ১৩০। তাদের সবাইকে প্রতি মাসে ২০ টাকা করে চাঁদা দিতে হয়। চাঁদার টাকা দিয়েই তারা এসব সমাজসেবামূলক কার্যক্রম করে থাকেন। তাদের লক্ষ্য সমাজ থেকে মাদক, বাল্যবিয়ে ও নিরক্ষরতা দূর করে সমাজকে আধুনিকতার ছোঁয়া দেয়া।
সংগঠনের উদ্যোক্তা তারিকুল ইসলাম তারিক জানান, মাদকের থাবা থেকে নিজেদের সুরক্ষিত রাখা, দায়বদ্ধতা থেকে সমাজের জন্য কিছু করার উদ্দেশ্য নিয়েই ‘আমরা কাঞ্চন পৌরবাসী’ নামে তাদের যাত্রা শুরু হয়। তার সঙ্গে থাকা অপর ৯ সদস্য হলেন সানাউল্লাহ মান্নান সানী, সাদিকুর রহমান, সোহাগ, শওকত রাসেল, ইমতিয়াজ আহমেদ সাজিদ, নাজিমউদ্দিন, লিটন মিয়া, মেহেদী হাসান ও সবুজ। বর্তমানে তাদের কেউ স্থানীয় কলেজে ডিগ্রিতে পড়ছেন, কেউ রাজধানীর কোনো বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্সে লেখাপড়া করছেন। আবার কেউ প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। তারেক জানান, যাত্রা শুরুর পর সহপাঠী, বড় ভাই, ছোট ভাই, এলাকার সম্মানিত ব্যক্তিদের সঙ্গে তাদের উদ্দেশ্য সম্পর্কে আলোচনা করেন তারা। সবার মতামত অনুযায়ী গরিব-অসহায়দের প্রয়োজন হলে রক্তদান করার সিদ্ধান্ত হয়। প্রথমে স্থানীয় হাজী দায়েম উদ্দিন হাসপাতালে এক গরিব রোগীকে বিনামূল্যে রক্তদান করা হয়। তখন থেকে এ পর্যন্ত ওই সংগঠনের সদস্যরা এলাকাসহ আশপাশ গ্রামের প্রায় ১ হাজার রোগীকে রক্ত দিয়েছেন। এ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া এ সংগঠন সমাজে যেসব ছেলেমেয়ে টাকার জন্য লেখাপড়া করতে পারছেন না, যে অভিভাবক অর্থাভাবে মেয়েকে বিয়ে দিতে পারছেন না, যারা শীতবস্ত্র কিনতে পারছেন না; তাদের পাশে থেকে আর্থিকসহ বিভিন্ন সাহায্য ও সহযোগিতা করে আসছে। শুধু তাই নয়, সংগঠনটি প্রতি বর্ষা মৌসুমে
নদী-খাল-বিলে মাছ অবমুক্ত, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও রাস্তার পাশে বৃক্ষরোপণ করে বেশ সুনাম অর্জন করেছে। তাছাড়া বাল্যবিয়ে ও অবৈধভাবে বিদেশ গমনের অপকারিতা সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করার জন্য বিভিন্ন এলাকায় সচেতনতামূলক পথনাট্য প্রদর্শন করে থাকেন তারা। মাদকের ভয়াবহতা সম্পর্কে লোকজনকে ধারণা ও মাদকসেবীদের নিরাময় কেন্দ্রে পাঠানো আর মাদক ব্যবসায়ীদের পেশা পরিবর্তনের জন্য উৎসাহিত করে ‘আমরা কাঞ্চন পৌরবাসী’ সংগঠন। তারেক আরও বলেন, সংগঠনের জন্য বাইরে থেকে কোনো সহায়তা তারা নেন না। সদস্যদের চাঁদা দিয়েই সমাজে ভালো কিছু করার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তারা। তাদের লক্ষ্য সমাজ থেকে মাদক, বাল্যবিয়ে ও নিরক্ষরতা দূর করে সমাজকে আধুনিকতার ছোঁয়া দেয়া।
এ ব্যাপারে কাঞ্চন পৌরসভার মেয়র দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা বলেন, যখন যুবকরা অসৎসঙ্গে নষ্ট হয়ে যাচ্ছেন, ধ্বংস হয়ে যাচ্ছেন, ঠিক তখন মানবতার ডাক দিচ্ছেন আমারই পৌরসভার শতাধিক যুবক। তাদের সাধ্যানুসারে সর্বোচ্চ সহায়তা করা হবে। এ ধরনের সংগঠন প্রতিটি এলাকায় গড়ে উঠলে আমাদের দেশ হবে আলোকিত বাংলাদেশ।

Views: 14