দক্ষ মানবসম্পদ সূচকে ১০৪তম বাংলাদেশ

দক্ষ মানবসম্পদ সূচকের বৈশ্বিক মূল্যায়নে পিছিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। তবে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারতসহ কয়েকটি দেশের চেয়ে এগিয়ে। গত মঙ্গলবার জেনেভাভিত্তিক ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম (ডাব্লিউইএফ) হিউম্যান ক্যাপিটাল ইনডেক্সে ২০১৬ (মানবসম্পদ সূচক) প্রকাশ করে। এতে ১৩০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১০৪তম। বাংলাদেশ পেয়েছে ৫৭ দশমিক ৮৪ পয়েন্ট। আর ভারতের অবস্থান ১০৫তম। গত বছরের তালিকায় বিশ্বের ১২৪টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৯৯তম স্থানে। ওই বছর বাংলাদেশের স্কোর ছিল ৫৭.৬২ পয়েন্ট। দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে ভারত, নেপাল ও পাকিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে থাকলেও পিছিয়ে রয়েছে ভুটান ও শ্রীলঙ্কার চেয়ে। দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে শ্রীলঙ্কার অবস্থান সবার ওপরে। দেশটির অবস্থান ৫০তম আর ভুটানের অবস্থান ৭১। তালিকায় পাকিস্তানের জায়গা ১১৮তম স্থানে। বাংলাদেশের আরেক প্রতিবেশী মিয়ানমারের অবস্থান ১০৯তম। অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে মেধাশক্তি বাড়ানো, তাদের উন্নয়ন ও প্রতিপালনের দিক থেকে কোনো দেশের সক্ষমতার দিক বিবেচনায় এনে এ র্যাংকিং করা হয়েছে। মানবসম্পদ শ্রেষ্ঠত্বের এ তালিকায় শীর্ষস্থানে রয়েছে ফিনল্যান্ড, দ্বিতীয় নরওয়ে, তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে সুইজারল্যান্ড, চতুর্থ জাপান, পঞ্চম সুইডেন, ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে নিউজিল্যান্ড, সপ্তম ডেনমার্ক, অষ্টম নেদারল্যান্ডস, নবম কানাডা এবং দশম স্থানে রয়েছে বেলজিয়াম। প্রতিবেদনে দেখা যায়, ১৪ বছর পর্যন্ত বা শিশু শিক্ষার হারের দিক থেকে কিছুটা এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। এতে বাংলাদেশের অবস্থান ৮৭তম ও প্রাপ্ত স্কোর ৭৭.৮৮। তবে ১৫ থেকে ২৪ বছর বয়সী কিশোর শিক্ষার হারের দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান ৯৯তম, প্রাপ্ত স্কোর ৫৮.১৬। ২৫ থেকে ৫৪ বছর বয়সীদের মধ্যে শিক্ষায় সাফল্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১২২তম। প্রাপ্ত স্কোর ৪৭.২১ পয়েন্ট।