জাপানের আইটি খাতে কর্মসংস্থান হবে বাংলাদেশি তরুণদের

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল এবং আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে গতকাল অনুষ্ঠিত হয়েছে আইটি ইঞ্জিনিয়ার্স এক্সামিনেশন (আইটিইই) বিষয়ক সেমিনার ও সনদপত্র বিতরণী অনুস্থান। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আইটিইই সার্টিফিকেশন অর্জনকারীদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘২০২০ সালের মধ্যে জাপানে ৬০ হাজার আইটি পেশাজীবী প্রয়োজন। তবে দেশটির জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশির বয়স ৫০ এর বেশি। আর তাই আইটি পেশাজীবীদের চাহিদা মেটাতে বাংলাদেশের সাথে মিলে আইটিইই চালু করা হয়েছে।’ এর মাধ্যমে জাপানে বাংলাদেশের আইটি পেশাজীবীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে বলেও জানা তিনি। পলক আরও বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ থেকে আইটি বিষয়ে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্নকারীদের মান একরকম নয়। আইটিইই পরীক্ষা আইটি গ্র্যাজুয়েটদের আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেশন প্রাপ্তির পথ সুগম করে দেবে।’ আইসিটি বিভাগ ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে দেশের আইটি গ্র্যাজুয়েটদের দেশে বসেই সাশ্রয়ী মূল্যে আন্তর্জাতিক আইটি সার্টিফিকেশন অর্জনের এ সুযোগ চালু করে। এ সার্টিফিকেশন পরীক্ষা পরিচালনা করে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল। প্রতি বছর দুইবার এপ্রিল ও অক্টোবরে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ সার্টিফিকেশন জাপানসহ এশিয়ার ১৩টি দেশে স্বীকৃত। এ পর্যন্ত আইটিইই সার্টিফিকেশন পেয়েছেন ২৩১ জন।