প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ এশিয়ার টাইগার হবে

আমি যত দূরেই যাই না কেন, আমার হৃদয় পড়ে থাকবে বাংলাদেশেই। বাংলাদেশের আলো-বাতাস, এখানকার সরল মানুষের মুখ, সংস্কৃতি সবকিছুই ভীষণ মনে পড়বে।’ কথাগুলো ঠিক এভাবেই আবেগতাড়িত হয়ে বলছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মিসরের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত ও কূটনৈতিক কোরের ডিন মাহমুদ ইজ্জাত। রোববার (১৯ জুন) সন্ধ্যায় ভোরের পাতা, পিপল’স টাইম, বাংলাদেশ মানবাধিকার উন্নয়ন কমিশন এবং বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন আয়োজিত রাজধানীর গুলশান ক্লাবে এক জমকালো ইফতার অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে মাহমুদ ইজ্জাতকে বিদায়ী সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে তিনি তাঁর বক্তব্য চলাকালে বাংলাদেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে একজন যোগ্য অধিনায়ক হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, ‘বর্তমান বাংলাদেশ যতটা এগিয়েছে, তার অন্যতম এবং প্রধান কারণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিরলস পরিশ্রম। তিনি বাংলাদেশের জন্য নিবেদিতপ্রাণ। বাংলাদেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর এই নিরলস চেষ্টা অব্যাহত থাকলে বাংলাদেশ হবে এশিয়ার টাইগার।’

ইফতারে মন্ত্রিসভার সদস্য, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, ব্যাংকার, বিচারক, রাজনৈতিক দলের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, বিনোদন জগতের নবীন-প্রবীণ সদস্য, সঙ্গীতশিল্পী, মডেল এবং সংবাদপত্র সমিতির লোকজনসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা এবং নানা পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ, পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া বিদেশি কূটনীতিকদের মধ্যে যুক্তরাজ্য, নেদারল্যান্ডস, সৌদি আরব, ওমান, তুরস্ক, মালদ্বীপ, কাতার ও পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত এবং হাইকমিশনাররা উপস্থিত ছিলেন।

ইফতারের আগে বিভিন্ন টেবিল ঘুরে আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন ভোরের পাতা সম্পাদক ড. কাজী এরতেজা হাসান, প্রধান সম্পাদক কাজী হেদায়েত হোসেন রাজ, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আবেগ রহমান এবং পিপল’স টাইমের প্রধান উপদেষ্টা ও বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাসুদ এ খান। এ সময় তাঁরা আগত অতিথিদের কুশল সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন। ইফতারের আগে জাতির অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এর আগে বিদেশি কূটনীতিক ও মিশনপ্রধানদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন তাঁরা।