ভৌগোলিক গুরুত্বে বাংলাদেশ হবে সেতুবন্ধ

ভৌগোলিক অবস্থানের গুরুত্বকে কাজে লাগাতে পারলে বাংলাদেশ প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের সেতুবন্ধ হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে ‘ন্যাশনাল স্পেশাল ডাটা ইনফ্রাস্ট্রাকচার (এনএসডিআই) ফর বাংলাদেশ’ শিরোনামে আন্তর্জাতিক সেমিনারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের ভৌগোলিক অবস্থান আমাদের এমন গুরুত্ব দিয়েছে, আমরা যদি এর সবটুকু কাজে লাগাতে পারি, তাহলে প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের মধ্যে যে সেতুবন্ধন রচনা করা, তা বাংলাদেশই করতে পারবে। খবর বিডিনিউজের।
অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী দেশের উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য-উপাত্তের অপ্রতুলতার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, দেশকে সুন্দরভাবে গড়তে পরিকল্পনা দরকার। কিন্তু এজন্য আমাদের তথ্য-উপাত্তের অভাব আছে। আর এজন্যই আমরা ন্যাশনাল স্পেশাাল ডাটা ইনফ্রাস্ট্রাকচার গঠনের উদ্যোগ নিয়েছি। এ অনুষ্ঠান থেকেই প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজধানীর দামালকোটে স্থাপিত বাংলাদেশ জরিপ অধিদফতরের ডিজিটাল ম্যাপিং সেন্টারের উদ্বোধন করেন। তার আগে তিনি বাংলাদেশ জরিপ অধিদফতর, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এবং জাইকার সহযোগিতায় আয়োজিত ‘ন্যাশনাল স্পেশাাল ডাটা ইনফ্রাস্ট্রাকচার (এনএসডিআই) ফর বাংলাদেশ’ আন্তর্জাতিক সেমিনারের উদ্বোধন করেন।
ডিজিটাল ম্যাপিংয়ের ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ম্যাপিং থাকলে যে কোনো উন্নয়ন সম্ভব। আমাদের ভৌগোলিক অবস্থান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও বৈচিত্র্যময়। তিনি বলেন, প্রতিটি গ্রাম ও উপজেলাকে পরিকল্পিতভাবে গড়ে তুলতে পারলে, সব সেবা নিশ্চিত করা সম্ভব। সমুদ্র উপকূলে নতুন জেগে ওঠা চর ও দ্বীপগুলোর টপোগ্রাফিক জরিপ কার্যক্রম পরিচালনায় ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশ জরিপ অধিদফতরের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিচ্ছিন্নভাবে জিও-স্পেশাল ডাটা প্রস্তুত ও ব্যবহার করছে। এনএসডিআই গঠনের মাধ্যমে সব জিও-স্পেশাল ডাটা একই প্লাটফর্মে জিও-পোর্টালে সংরক্ষিত থাকবে। ফলে জিও-স্পেশাল ডাটা ব্যবহারকারী সব প্রতিষ্ঠানের চাহিদা অনুযায়ী ডাটা ব্যবহারের সুযোগ তৈরি হবে।