বাংলাদেশের উদ্যোগে ‘ফ্রেন্ডস অফ মাইগ্রেশন’ গ্রুপের যাত্রা

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রায় বৈশ্বিক নির্দেশনার আলোকে নিরাপদ, নিয়মতান্ত্রিক, নিয়মিত ও দায়িত্বশীল বহির্গমণ কার্যকর করে অভিবাসীদের কল্যাণ ও অধিকার নিশ্চিতে যাত্রা শুরু করল ‘ফ্রেন্ডস অফ মাইগ্রেশন’ গ্রুপ

জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের উদ্যোগে শুক্রবার নবগঠিত ‘ফ্রেন্ডস অব মাইগ্রেশন’ গ্রুপের সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন।

গ্রুপের অপর তিন কো-চেয়ার হচ্ছে বেনিন, মেক্সিকো ও সুইডেন।

এ পর্যন্ত মোট ২২টি দেশ এই গ্রুপের সদস্য হয়েছে।

বিশ্বব্যাপী অভিবাসী সমাজের সার্বিক কল্যাণে আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুনের আহ্বানে শরণার্থী ও অভিবাসী ব্যাপকহারে চলাচল মোকাবেলায় উচ্চ পর্যায়ের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

জাতিসংঘ সদর দপ্তরে অনুষ্ঠেয় এ সম্মেলনে “ফ্রেন্ডস অফ মাইগ্রেশন” গ্রুপ তাদের লক্ষ্য অর্জনে বিশ্ব নেতাদের কাছ থেকে ইতিবাচক প্রতিশ্রুতি আদায়ের চেষ্টা চালাবে।

সভায় এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

জাতিসংঘের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল ইয়ান এলিয়াসন সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন।

তিনি এই গ্রুপ গঠনের তাৎপর্য তুলে ধরে ‘গ্লোবাল ফোরাম ফর মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট’ (জিএফএমডি) এর বর্তমান চেয়ার হিসেবে বাংলাদেশের গঠনমূলক ভূমিকার প্রশংসা করেন।

সভায় জাতিসংঘে গ্লোবাল মাইগ্রেশন গ্রুপের চেয়ার লক্ষ্মী পূরীসহ ফ্রেন্ডস অফ মাইগ্রেশন গ্রুপের বিভিন্ন সদস্য রাষ্ট্রের স্থায়ী প্রতিনিধি, কূটনীতিক এবং জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সংস্থার কর্মকর্তারা অংশ নেন।