সম্মাননা পেলেন রত্নগর্ভা মায়েরা

শত ঝড়ঝাপ্টা সামলে সন্তানদের মানুষের মতো মানুষ করে সমাজে প্রতিষ্ঠিত করা ৩৪ মাকে ‘রত্নগর্ভা মা’ সম্মাননা প্রদান করলো আজাদ প্রোডাক্টস। রোববার বিশ্ব মা দিবসে এক জমকালো অনুষ্ঠানে তাদের হাতে এ সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়।

ঢাকা ক্লাবের স্যামসন এইচ. চৌধুরী সেন্টারে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন- সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা গীতিআরা সাফিয়া চৌধুরী, ঢাকা ক্লাবের সভাপতি সৈয়দ শাহেদ রেজা, ইফাদ গ্রুপের চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ টিপু, নাট্যব্যক্তিত্ব লাকী ইনাম, আরটিভির প্রধান নির্বাহী সৈয়দ আশিক রহমান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আজাদ প্রোডাক্টসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ।

স্পিকার তার বক্তব্যে বলেন, মায়ের জীবনে সবচেয়ে বড় লক্ষ্য ও প্রাপ্তি হলো সন্তানের মঙ্গল কামনা করা। মা আমাদের সবার জীবনে গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে আছেন। তাই শুধু আজকের দিনটি নয়, জীবনে প্রতিটি দিনই মা দিবস হওয়া উচিত।

গীতিআরা সাফিয়া চৌধুরী বলেন, মা বেঁচে থাকতে আমরা তাকে দেখি না, হারানোর পর বুঝতে পারি।

সম্মাননার প্রেক্ষাপট তুলে ধরে আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমি বড় অবেলায় মাকে হারিয়েছি। আমার সাফল্য মা দেখে যেতে পারেন নি। তিনি বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুবরণ করেছেন। আমি এসব রত্নগর্ভা মায়েদের মাঝে নিজের মাকে দেখতে পাই। এটাই এ সম্মাননা দেওয়ার স্বার্থ।

এবার বিশেষ ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন নয়জন। তারা হলেন- মঞ্জু আরা, কামরুন নিসা দুলাল, অধ্যক্ষ তহুরা আক্তার খাতুন, শিরিন হক, সুলতানা রাজিয়া (নাছিমা), জিন্নাতুন নেসা, রেজিয়া বেগম, আফরোজা বেগম ও সেতারা বেগম। সাধারণ ক্যাটাগরিতে ২৫ পুরস্কৃত মা হচ্ছেন- লুৎফুন নাহার বেগম, আমেনা বেগম, জামিলা আক্তার, হোসনে আরা বেগম জ্যোৎস্না, হোসনে আরা বেগম, সুফিয়া খানম, রেহানা সামাদ, সুলতানা রোকেয়া আখতার, জাহান-আরা আহমেদ, রওশন আরা খাতুন, নূরে আলম মর্ত্তুজা বেগম, মঞ্জু রানী মিস্ত্রী, শিখা বড়ূয়া, যোসপিন কোড়াইয়া, সৈয়দ শাহান আরা, সালিমা খাতুন, খুরশীদ জাহান, খোরশেদ আরা বেগম, লতিফা বেগম, মাকছুদা বেগম, আনোয়ারা বেগম, হাসিনা বানু, মায়মুনা বেগম ও ইউ. কে. এম. ফরিদা বেগম।

এছাড়া একজন বাবাকে ‘মাই ড্যাড ওয়ান্ডারফুল’ সম্মাননা দেওয়া হয়। এ সম্মাননা পেয়েছেন নাট্যব্যক্তিত্ব ড. ইনামুল হক। ২০০৩ সাল থেকে আজাদ প্রোডাক্টস রত্নগর্ভা সম্মাননা দিয়ে আসছে।

Views: 31