সম্পর্ক জোরদারে বাংলাদেশ-সৌদি বৈঠক অনুষ্ঠিত

দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্ক ও সহযোগিতা জোরদারের লক্ষ্যে সৌদি আরবের পররাষ্ট্র মন্ত্রী আবদেল বিন আল-জুবায়েরের সঙ্গে বৈঠক করেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। গত সোমবার সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রলায়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে দুই পররাষ্ট্র মন্ত্রীর মধ্যে দ্বি-পক্ষীয় স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। জাতিসংঘ এবং ইসলামী সম্মেলন সংস্থা ওআইসির কর্মকাণ্ড নিয়েও তারা আলোচনা করেন। গতকাল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

 

বৈঠকে সৌদি বাদশাহ সালমানের প্রতি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাহমুদ আলী। এ সময় সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রী আবদেল বিন আল-জুবায়ের জানান, বাদশাহ সালমান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে দ্রুত সৌদি আরবে আনুষ্ঠানিক সফরে স্বাগত জানাতে আগ্রহী।

 

সৌদি আরবের সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী সৌদ আল-ফয়সালের স্মরণে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গত রবিবার দেশটিতে যান মাহমুদ আলী। ওই দিনই এক সম্মেলনে যোগ দেন তিনি। ওই অনুষ্ঠানে বাহরাইন, লেবাননসহ ইসলামী বিশ্বের অনেক নেতা যোগ দেন। কিং ফয়সাল সেন্টার ফর রিসার্চ এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ রিয়াদে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

 

সৌদি আরব সফরকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রী কিং আবদুল্লাহ হিউম্যানিটেরিয়ান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান তুর্কি বিন আব্দুল্লাহর সঙ্গেও সাক্ষাত্ করেন। বাংলাদেশে ঘূর্ণিঝড়ে নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্র ও দারিদ্র্য দূরীকরণে ফাউন্ডেশনের প্রশংসা করেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী। অন্যদিকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করেন তুর্কি বিন আব্দুল্লাহ। বাংলাদেশের সঙ্গে অন্যান্য ক্ষেত্রে সম্পর্ক শক্তিশালী করার আশা প্রকাশ করেন তিনি।

 

ধর্মের নামে সহিংসতার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বকে সোচ্চার হতে হবে

 

ধর্মের নামে সহিংসতার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। সৌদি আরবে দেশটির সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স সৌদ আল ফয়সাল স্মরণে গত রবিবার আয়োজিত একটি আলোচনা সভায় তিনি এই আহ্বান জানান। তিনি বলেন, দৃঢ়তার সঙ্গে সমন্বিতভাবে সন্ত্রাসবাদের হুমকি ও সহিংস চরমপন্থা মোকাবেলায় এক কাতারে আসতে মুসলিম দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান তিনি। কিং ফয়সাল সেন্টার ফর রিসার্চ এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ রিয়াদে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ওই অনুষ্ঠানে বাহরাইন, লেবাননসহ ইসলামি বিশ্বের অনেক নেতা যোগ দেন। গতকাল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

 

এদিকে, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ও সহযোগিতা জোরদারের লক্ষ্যে সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদেল বিন আল-জুবায়েরের সঙ্গে বৈঠক করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। গত সোমবার সৌদি পররাষ্ট্র্র মন্ত্রলায়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যে দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। জাতিসংঘ এবং ইসলামি সম্মেলন সংস্থা ওআইসির কর্মকাণ্ড নিয়েও তারা আলোচনা করেন। বৈঠকে সৌদি বাদশাহ সালমানের প্রতি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী। এ সময় সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদেল বিন আল-জুবায়ের জানান, বাদশাহ সালমান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে দ্রুত সৌদি আরবে আনুষ্ঠানিক সফরে স্বাগত জানাতে আগ্রহী।

 

অন্যদিকে সৌদি আরব সফরকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিং আবদুল্লাহ হিউম্যানিটেরিয়ান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান তুর্কি বিন আব্দুল্লাহর সঙ্গেও সাক্ষাত্ করেন। বাংলাদেশে ঘূর্ণিঝড়ে নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্র ও দারিদ্র্য দূরীকরণে ফাউন্ডেশনের প্রশংসা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। অন্যদিকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করেন তুর্কি বিন আব্দুল্লাহ। বাংলাদেশের সঙ্গে অন্যান্য ক্ষেত্রে সম্পর্ক শক্তিশালী করার আশা প্রকাশ করেন তিনি।