পানি বিষয়ক জাতিসংঘ প্যানেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সুপেয় পানি নিয়ে জাতিসংঘের উচ্চ পর্যায়ের একটি প্যানেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। শেখ হাসিনা ছাড়াও মরিশাসের প্রেসিডেন্ট আমেনাহ গারিব, মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিকে পেয়ে নিয়েতো, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল, হাঙ্গেরির প্রেসিডেন্ট ইয়ানোস আদের, জর্ডানের প্রধানমন্ত্রী আব্দুল্লাহ এনসুর, নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা, সেনেগালের প্রেসিডেন্ট ম্যাকি সল ও তাজিকিস্তানের প্রেসিডেন্ট এমামালি রাহমান এই প্যানেলে রয়েছেন। জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম বৃহস্পতিবার ১০ রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের এই প্যানেল ঘোষণা করেন। প্যানেলে দুজন বিশেষ পরামর্শকও রাখা হয়েছে। এরা হলেন দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী হান সুং সু এবং পেরুর পরিবেশ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মানুয়েল পুলগার-ভিদাল।

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি) ৬ অর্জনে ‘কার্যকর পদক্ষেপ’-এর জন্য এই প্যানেল করা হয়েছে। এসডিজি ৬-এ সবার পানি ও স্যানিটেশন সুবিধা প্রাপ্তি এবং এর টেকসই ব্যবস্থাপনার ওপর আলোকপাত করা হয়েছে। এক বিবৃতিতে জাতিসংঘ মহাসচিব বলেছেন, ‘দারিদ্র্য বিমোচন ও অন্যান্য টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনে সবার জন্য পানি ও স্যানিটেশন নিশ্চিত করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’ এসডিজি ৬ অর্জনে সব অংশীদারের প্রতি রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও কারিগরি সহায়তা নিয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান জাতিসংঘ মহাসচিব।

বর্তমানে বিশ্বে ২৪০ কোটি মানুষ উন্নত স্যানিটেশন সুবিধার বাইরে রয়েছে। অন্তত ৬৬ কোটি ৩০ লাখ মানুষ নিরাপদ পানির সুবিধা থেকে বঞ্চিত। জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, মানসম্মত স্যানিটেশন, পানি ও বিশুদ্ধতার অভাবে প্রতিবছর প্রায় পৌনে সাত লাখ মানুষের প্রাণহানি এবং অনেক দেশের জিডিপির প্রায় ৭ শতাংশ ক্ষতি হচ্ছে।