ছয় মাসের মধ্যে ৫শ’র বেশি স্থানে ওয়াই-ফাই হটস্পট

ওয়াই-ফাই হটস্পটের মাধ্যমে দেশজুড়ে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে মোবাইলফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড একটি বৃহৎ প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় তারা আগামী ছয় মাসে ৫০০টি শীর্ষস্থানীয় রেস্তোরা, ক্যাফে ও রিটেইল আউটলেট, ১০০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ১০টি পাবলিক প্লেস (বিমানবন্দর ও রেল স্টেশন) এবং ৩৫০টি বাস, ট্যাক্সি ও ট্রেনে উচ্চগতির ওয়াইফাই সেবা প্রদান করবে। আজ ঢাকার স্থানীয় একটি হোটেলে ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে রবির সিইও সুপুন বীরসিংহে, চিফ করপোরেট অফিসার মতিউল ইসলাম নওশাদসহ রবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। রবির যে সকল গ্রাহকরা কমপক্ষে ১ জিবি’র মোবাইল ইন্টারনেট প্যাক কিনেছেন তারা এই ফ্রি ওয়াই-ফাই ব্যবহার করতে পারবেন। বাস, ট্যাক্সি ও ট্রেনে ওয়াই-ফাই ব্যবহার উপযোগী মোবাইল ফোন থাকলেই যে কেউ বিনামূল্যে এ ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। এ উপলক্ষে আয়োজিত এক বক্তৃতায় ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের শতভাগ বাস্তবায়ন সম্ভব হবে ইন্টারনেট বিস্তারের মাধ্যমে। ইন্টারনেট বিস্তারে সরকার ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত সরকার এ সেবা পৌঁছে দিতে চায়। তিনি বলেন, আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে ইন্টারনেট সেবাকে সাশ্রয়ী ও সহজলভ্য করা এবং জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়া। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ওয়াই-ফাই প্রযুক্তির মাধ্যমে জনগণের কাছে মানসম্মত ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেয়ার জন্য রবি যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তা যথেষ্ট প্রসংশনীয়। জনগণ যেহেতু ক্রমশ ডিজিটাল জীবনধারায় অভ্যস্ত হয়ে উঠছে, তাই উচ্চগতির ইন্টারনেটের চাহিদা মেটাতে এ পদক্ষেপ সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।