কৃষিপণ্য সংরক্ষণ ও ফুড প্রসেসিংয়ে বিনিয়োগ করবে পোল্যান্ড

পোল্যান্ড কৃষিপণ্য সংরক্ষণ ও ফুড প্রসেসিং ইন্ডাস্ট্রিতে বিনিয়োগ করবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে তাঁর কার্যালয়ে বাংলাদেশে সফররত পোল্যান্ডের ইকনমিক ডেভেলপমেন্ট বিষয়ক ডেপুটি মিনিস্টারের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মতবিনিময় করে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, আগামী অল্প দিনের মধ্যে পোল্যান্ডে বাংলাদেশের রপ্তানি এক বিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে যাবে। পোল্যান্ড বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক অংশীদার। পোল্যান্ড ইউরোপিয়ন ইউনিয়নের সদস্য। তিনি বলেন, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দেয়া অস্ত্র ছাড়া সব পণ্য রপ্তানির সুযোগের আওতায় বাংলাদেশ পোল্যান্ডে জিএসপি সুবিধা পেয়ে আসছে। পোল্যান্ডের বাজারে বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানি বাড়ছে। পোল্যান্ডের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তির প্রক্রিয়া চলছে। এরফলে পোল্যান্ডে বাংলাদেশর তৈরি পণ্যের রপ্তারি আরও বাড়বে। মন্ত্রী বলেন, পোল্যান্ড বাংলাদেশের স্পেশাল ইকনমিক জোনে বিনিয়োগে আগ্রহী। বিশেষ করে কঠিন শিলা সেক্টর এবং কৃষিপণ্য সংরক্ষণ ও ফুড প্রসেসিং ইন্ডাস্ট্রিতে বিনিয়োগ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে পোল্যান্ড। বাংলাদেশ এবং পোল্যান্ডের ব্যবসায়ীরা পারস্পরিক সফর বিনিময়ের মাধ্যমে বাণিজ্য বৃদ্ধি করা সম্ভব হবে। তোফায়েল আহমেদ বলেন, বাংলাদেশে এ মুহূর্তে ৩০টি স্পেশাল ইকনমিক জোন প্রতিষ্ঠার কাজ এগিয়ে চলছে। বিনিয়োগে আকর্ষণীয় সুযোগ-সুবিধা দেয়া হচ্ছে। পোল্যান্ডেকে এখানে বিনিয়োগের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। কঠিন শিলা সেক্টরে কাজ করার দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা আছে পোল্যান্ডের, এ সেক্টটে তারা বাংলাদেশে কাজ করতে আগ্রহী। বাংলাদেশের কৃষি পণ্য সংরক্ষণ ও প্রসেসিং ইনডাস্ট্রিতে বিনিয়োগ ও বাণিজ্য বৃদ্ধি করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে পোল্যান্ড। পোল্যান্ডের ডেপুটি মিনিস্টার বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ ভালো। পোল্যান্ড বাংলাদেশের কঠিন শিলা সেক্টর ও ফুড প্রোসেসিং ইন্ডাস্ট্রিতে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী। বাংলাদেলের সাথে পোল্যান্ডের চলমান বাণিজ্য বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। দ্বীপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তির মাধ্যমে বাণিজ্য বৃদ্ধি করা হবে। প্রসঙ্গত, গত অর্থবছরে বাংলাদেশ পোল্যান্ডে রপ্তানি করেছে ৪৯৪.৩৪ মিলিয়ন ইউএস ডলার মূল্যের পণ্য, একই সময়ে বাংলাদেশ আমদানি করেছে ৩৯.৫০ মিলিয়ন ইউএস ডলার মূল্যের পণ্য। বাংলাদেশেল পক্ষে বাণিজ্য ব্যবধান ৫৫৪.৮৪ মিলিয়ন ইউএস ডলার। পোল্যান্ডের বাজারে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক, কাঁচা পাট ও পাটজাত পণ্য, চাড়াজাত পণ্য টেবিল ওয়্যারসহ বিভিন্নপণ্যের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। এ সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত সচিব (মহাপরিচালক, ডব্লিউটিও সেল) শুভাশীষ বসু, অতিরিক্ত সচিব মো. শওকত আলী উপস্থিত ছিলেন।