উন্নয়নে ব্যাপক সাফল্য

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ধারাবাহিক সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের দুই বছর পূর্তি আজ। গত দুই বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার দেশের সব ক্ষেত্রেই উল্লেখযোগ্য উন্নতি সাধনে সমর্থ হয়েছে। একই সঙ্গে রাজনীতিতে আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করেছে ক্ষমতাসীন দলটি। অবশ্য আলোর বিপরীতে অন্ধকারে মতো এ সময় বেশ কিছু অনাকাক্সিক্ষত ঘটনাও ঘটেছে। বর্তমান সরকারের গত দুই বছরের কর্মকা- জাতির সামনে তুলে ধরতে আজ সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল সোমবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর ১২ জানুয়ারি দ্বিতীয় দফায় সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ। এরপরই একের পর এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিতে থাকে সরকার। গত এক বছরে সরকারের উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপগুলোর মধ্যে ছিল নিজ অর্থায়নে মেগা প্রকল্প পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু, বিদ্যুতের লোডশেডিং প্রায় শূন্য শতাংশে নামিয়ে আনা, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে নানামুখী পদক্ষেপ, খাদ্যশস্য উৎপাদনে উদ্বৃত্ত দেশে পরিণত হওয়া ছাড়াও কৃষিক্ষেত্রে অভাবনীয় অগ্রগতি, জিডিপি প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি, বিশ্বব্যাংকের তালিকা অনুযায়ী নিম্ন আয়ের দেশ থেকে নিম্ন মধ্য আয়ের দেশে উন্নীত হওয়া, শিক্ষার উন্নতিতে নানামুখী পদক্ষেপ, শিল্পোৎপাদন বৃদ্ধি ও উদ্যোক্তাদের উৎসাহী করতে সহজ শর্তে ঋণ প্রদান ও বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি, নারীর ক্ষমতায়নে পদক্ষেপ ইত্যাদি। এদিকে রাজনীতিতেও একক আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করেছে আওয়ামী লীগ। গত দুই বছরে বিভিন্ন স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের বিজয়েই তা স্পষ্ট। এছাড়া ২০১৪ সালে বিএনপিসহ ২০-দলীয় জোট সরকারবিরোধী আন্দোলনে মাঠ গরম করলেও ২০১৫ সালের প্রথম দিক ছাড়া শেষের দিকে তা আর দেখা যায়নি। এর মধ্যে ২০১৫ সালের প্রথম দিকে বিএনপির টানা অবরোধ-হরতাল ও জ্বালাও-পোড়াও বেশ শক্ত হাতেই দমন করে সরকার। এছাড়া মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয় গত বছর, যা দেশকে কলঙ্ক মোচনের পথে এগিয়ে নিয়ে যায় আরও এক ধাপ।

এদিকে এ সময়ে দেশে বেশ কিছু অনাকাক্সিক্ষত ঘটনায় সরকারের ভাবমূর্তি নিয়ে প্রশ্নও ওঠে। গত এক বছরে নিরীহ মানুষকে হত্যা ও বোমাবাজির মধ্য দিয়ে বারবার নিজেদের অস্তিত্ব জানান দেয় বেশ কিছু জঙ্গিবাদী সংগঠন। দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো মসজিদে ঢুকে হামলা চালায় জঙ্গিবাদীরা। খুন হন দুই বিদেশি। এছাড়া ধর্মীয় স্থাপনাসহ নানা স্থানে বোমা হামলা চালায় জঙ্গি-সন্ত্রাসীরা। তবে এদের দমনে সক্রিয় ছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। বেশ কিছু জঙ্গিকে আটকও করা হয়। তাদের মধ্যে পাকিস্তানি জঙ্গিও ছিল। তবে বিভিন্ন সময়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন অপকর্মে বিব্রত হতে হয় সরকারকে। এর সর্বশেষ উদাহরণ গত শনিবার রাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের এক কর্মকর্তাকে আটকে এক পুলিশ এসআইয়ের চাঁদা দাবি ও হত্যার হুমকি। অবশ্য এসব অভিযোগের বিষয়ে পদক্ষেপও গ্রহণ করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। গত এক বছরে অন্যতম আলোচিত দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়মুক্তি। এতে সরকারের অনেক মন্ত্রী, এমপি অপরাধ করেও দায়মুক্তি পেয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠে বিভিন্ন মহল থেকে। এছাড়া আধিপত্য বিস্তার, ব্যবসা-বাণিজ্য, টেন্ডারবাজি ও অভ্যন্তরীণ কোন্দলে বিভিন্ন সময় ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলে।

২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট। টানা ৫ বছর সরকার পরিচালনার পর দ্বিতীয় মেয়াদে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আবারও সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪-দলীয় জোট। নির্বাচনের পর এইদিন সরকারপ্রধান হিসেবে শপথ নেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যাত্রা শুরু হয় ধারাবাহিক সরকারের।

জানা গেছে, ধারাবাহিক সরকারের সাফল্যের চিত্র তুলে ধরে দেশবাসীর উদ্দেশে আজ সন্ধ্যায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভাষণটি সরাসরি বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনে প্রচারিত হবে।