বেশিরভাগ ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা বেড়েছে

গত বছর বিনিয়োগে মন্দার মধ্যেও বেশিরভাগ ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা বেড়েছে। এবার ব্যাংকগুলোর পরিচালন মুনাফার বড় অংশই এসেছে কমিশন, সার্ভিস চার্জ, বৈদেশিক মুদ্রা ব্যবসার আয় থেকে। এ ছাড়া সরকারি ট্রেজারি বিল ও বন্ডে ব্যাংকগুলোর বিভিন্ন সময়ে দেওয়া ঋণ থেকেও বড় ধরনের আয় আসায় সামগ্রিকভাবে পরিচালন মুনাফা বেড়েছে। সদ্য বিদায়ী বছরে বেসরকারি ব্যাংকগুলোর পরিচালন মুনাফা বাড়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে ব্যাংকগুলো।
পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মধ্যে নানা প্রতিকূলতা মোকাবিলা করে এবারও সবচেয়ে বেশি মুনাফা করেছে ইসলামী ব্যাংক। বিদায়ী বছরে তারা পরিচালন মুনাফা করেছে ১ হাজার ৮০৭ কোটি টাকা। আগের বছরে মুনাফা করেছিল ১ হাজার ৭০৩ কোটি টাকা। পরিচালন মুনাফায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সাউথইস্ট ব্যাংক। বিদায়ী বছরে তাদের অর্জিত মুনাফার পরিমাণ ৮৩৫ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৮৩২ কোটি টাকা। তৃতীয় অবস্থানে পূবালী ব্যাংক, তাদের অর্জিত মুনাফা ৮১০ কোটি টাকা। ৭৬০ কোটি টাকা মুনাফা করে চতুর্থ অবস্থানে আছে এবি ব্যাংক।
ব্যাংকের মুনাফা পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গেল বছর বেসরকারী খাতের ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক পরিচালন মুনাফা করেছে প্রায় ৮৩৩ কোটি টাকা, আগের বছরে ছিল ৮৩৩ কোটি টাকা। এবি ব্যাংক ৭৬০ কোটি টাকা, আগের বছরে ছিল ৭৩৭ কোটি টাকা। ডাচ্-বাংলা ব্যাংক ৬৭০ কোটি টাকা, আগের বছরে ছিল ৫৬০ কোটি টাকা; আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক ৬৫০ কোটি টাকা, আগের বছরে ছিল ৬১৩ কোটি টাকা; এক্সিম ব্যাংক ৬৬০ কোটি টাকা, আগের বছরে ছিল ৬২৫ কোটি টাকা; ব্যাংক এশিয়া ৬০৫ কোটি টাকা, আগের বছর যা ছিল ৫৭৮ কোটি টাকা; সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক ৫৫০ কোটি টাকা।