যুক্তরাষ্ট্র-অস্ট্রেলিয়ার চেয়েও নিরাপদ বাংলাদেশ

যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ার চেয়েও বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম এক নিরাপদ দেশ।
যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন-ভিত্তিক জনমত জরিপ সম্পর্কিত সংস্থা গ্যালাপ’র এক প্রতিবেদনে একথা বলা হয়।
প্রতিবেদনে বাংলাদেশ বিশ্বের নিরাপদ দেশ হিসেবে ৭৮ পয়েন্ট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ার ওপরে অবস্থান করছে। বাংলাদেশের পরের অবস্থানের এ দেশ দু’টির পয়েন্ট হচ্ছে ৭৭। এক্ষেত্রে ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে ফ্রান্সের অবস্থানও বাংলাদেশের নিচে।
এতে দেখা যায় যে, ৮৯ পয়েন্ট নিয়ে সিঙ্গাপুর বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ দেশ। এরপরই রয়েছে যথাক্রমে উজবেকিস্তান (৮৮ পয়েন্ট) ও হংকং (৮৭ পয়েন্ট)।
সবচেয়ে বেশি নিরাপত্তা ঝুঁকির দেশ হচ্ছে লাইবেরিয়া ও ভেনিজুয়েলা। এ দুটি দেশের পয়েন্ট হচ্ছে যথাক্রমে ৪০ ও ৪২।
আঞ্চলিক পর্যায়ে লাতিন আমেরিকার নিরাপত্তা ঝুঁকিতে থাকা ব্রাজিলের ৫২ পয়েন্ট আর মেক্সিকোর ৫৯ পয়েন্ট।
বাংলাদেশ ছাড়া দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারতের পয়েন্ট হচ্ছে ৬৭, পাকিস্তান ৬০ এবং নেপাল ও ভুটান ৭৩ পয়েন্ট নিয়ে একই অবস্থানে রয়েছে।
দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে কেবল শ্রীলংকা ৭৯ পয়েন্ট নিয়ে মাত্র ১ পয়েন্টের ব্যবধানে বাংলাদেশের ওপরে অবস্থান করছে।
এদিকে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ৮৭ পয়েন্ট নিয়ে ইন্দোনেশিয়া রয়েছে তালিকার শীর্ষে। এ অঞ্চলের অন্য দেশগুলোর মধ্যে মালয়েশিয়া ৬৪, থাইল্যান্ড ৭৪ এবং ভিয়েতনামের পয়েন্ট হচ্ছে ৭২।
গত ২০১৪ সালে ১৪১টি দেশের ১ লাখ ৪২ হাজার মানুষের মতামতের ভিত্তিতে এই প্রতিবেদন তৈরি হয়।
এ জরিপে অংশগ্রহণকারীদের জন্য ৩টি প্রশ্ন ছিল- ১. পুলিশের ওপর আস্থা, ২. রাতে চলাফেরা ও ৩. চুরি বা ডাকাতির ঘটনা। এই ৩ প্রশ্নের জবাবের ভিত্তিতে গ্যালাপের আইন-শৃঙ্খলা প্রতিবেদন-২০১৫ প্রণীত হয়।
সূত্র: বাসস।