৪৫ গণমাধ্যম কর্মী পেলেন মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড

শিশু অধিকার বিষয়ে সংবাদ প্রকাশে অবদান রাখায়  ৪৫ গণমাধ্যম কর্মীকে মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড সম্মাননা দিয়েছে ইউনিসেফ। তিনটি শ্রেণিতে ও দুইটি বিভাগে এ সম্মাননা দেয়া হয়। গতকাল একটি  হোটেলে সম্মাননা গ্রহণ করেন পুরস্কারপ্রাপ্তরা ও তাদের প্রতিনিধিরা। প্রতিযোগীদের মধ্যে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কার বিজয়ীরা যথাক্রমে ৫০ , ২৫  ও ১৫ হাজার টাকা, সনদপত্র ও ক্রেস্ট পেয়েছেন।

 

প্রিন্ট মিডিয়া (রিপোর্ট) শ্রেণিতে ১৮ ঊর্ধ্ব বিভাগে প্রথম পুরস্কার পেয়েছেন বাংলানিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমের মো. রফিকুল ইসলাম। প্রথম আলোর শেখ সাবিহা আলম দ্বিতীয় এবং দৈনিক ইত্তেফাকের রাবেয়া বেবী ও জান্নাতুন নাঈম প্রীতি যুগ্মভাবে তৃতীয় পুরস্কার পান। এছাড়া প্রিন্ট মিডিয়া (রিপোর্ট) অনূর্ধ্ব ১৮তে বিডিনিউজটুয়েন্টিফোর ডটকমের মো. মনির হোসেন প্রথম, প্রিন্ট মিডিয়া সৃজনশীল (১৮ উর্ধ্ব) বিভাগে ছোটদের বইয়ের মো. শওকত হোসেন প্রথম,; অনূর্ধ্ব ১৮ বিভাগে বিশ্ব সাহিত্য ভবনের ফারহা ফৌজিয়া অতশী প্রথম, টেলিভিশন সৃজনশীল অনূর্ধ্ব ১৮তে ইন্টারন্যাশনাল চিলড্রেন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ফারহা যাবিন ঐশী প্রথম, টেলিভিশন সৃজনশীল ১৮ ঊর্ধ্ব বিভাগে আরটিভির অনিমেষ আইচ প্রথম পুরস্কার পান। টেলিভিশন রিপোর্ট অনূর্ধ্ব ১৮তে ইটিভির সিফাত আল আমিন তন্ময় প্রথম, টেলিভিশন রিপোর্ট ১৮ ঊর্ধ্ব বিভাগে যমুনা টিভির এস এম নুরুজ্জামান প্রথম পুরস্কার পেয়েছেন। রেডিও রিপোর্ট অনূর্ধ্ব ১৮ বিভাগে বরেন্দ্র রেডিও’র সিফাত আল আমিন তন্ময় প্রথম, রেডিও রিপোর্ট ১৮ ঊর্ধ্ব বিভাগে এবিসি রেডিওর শাহনাজ শারমিন ও বিবিসি বাংলার ফারহানা পারভীন যুগ্মভাবে প্রথম পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া রেডিও সৃজনশীল অনূর্ধ্ব ১৮ ও ১৮ ঊর্ধ্ব বিভাগে আরো নয়জন পৃথক ছয়টি পুরস্কার পান।

 

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউনিসেফ বাংলাদেশের সহকারী প্রধান লুইস ভনো, প্রতিযোগিতার বিচারক কথাশিল্পী সেলিনা হোসেন, অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস, ফাহমিদুল হক, জাকির হোসেন রাজু, মিথিলা ফারজানা, রতন পাল ও কাদির কল্লোল। আরো বক্তব্য রাখেন ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত চিত্রনায়িকা আরিফা জামান মৌসুমী ও যাদুশিল্পী জুয়েল আইচ।