সাফ অনুর্ধ্ব-১৬ ফুটবলে ভারতকে হারিয়ে স্বাগতিকদের ‘প্রতিশোধ’

সাফ অনুর্ধ্ব ১৬ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ভারতকে ২-১ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এর মধ্য দিয়ে ২০১৩ সালে ভারতের কাছে ২-০ গোলে হারের ‘প্রতিশোধ’ নিল স্বাগতিকরা।

বৃহস্পতিবার সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ‘এ’ গ্রুপের শেষ ম্যাচটি শুরু হয় বিকেল ৫টায়। শুরু থেকে দু’দলই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে নিজেদের শক্তির জানান দিতে শুরু করে। তবে ম্যাচে এদিন তুলনামূলকভাবে স্বাগতিকরাই ভালো খেলেছে।

ম্যাচের প্রথমার্ধের ৩১ মিনিটে সতীর্থ খেলোয়াড়ের পাস থেকে প্রথম গোলটি করে বাংলাদেশের মিডফিল্ডার মো. শাওন। ডি বক্সের মধ্যে বল পেয়ে বাম পায়ের জোরালো শটে বল জালে পাঠিয়ে স্বাগতিক দর্শকদের উল্লাসে মাতান তিনি।

প্রথম গোলের ৫ মিনিটের মাথায় আরও একটি গোলের সুযোগ পেয়েছিল শাওন। তবে মিডফিল্ডার সাদ উদ্দিনের দুর্দান্ত পাস থেকে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে প্রতিপক্ষের জালে পাঠাতে পারেননি এ মিডফিল্ডার।

এর আগে প্রথমার্ধের ১২ মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল ভারত। তবে দুর্বল শটের কারণে গোলের দেখা পায়নি তারা।

এক গোলে পিছিয়ে থেকে প্রথমার্ধের খেলা শেষ করা ভারত দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই খেলায় সমতা আনে। ভারতীয় দলের ফরোয়ার্ড রহিম আলী ম্যাচের ৪৮ মিনিটে গোল করে দলকে খেলায় ফেরান।

ম্যাচের ৮৪ মিনিটে নিজেদের ডি বক্সের মধ্যে ভারতের ডিফেন্ডার এজিন টম ফাউল করলে রেফারি রবীন্দ্র মহার্জন পেনাল্টির নির্দেশ দেন। আর পেনাল্টি থেকে ডিফেন্ডার আতিকুজ্জামান গোল করলে বাংলাদেশ এগিয়ে যায় ২-১ গোলে।

এরপর অতিরিক্ত সময়সহ শেষ ৯ মিনিটে আরও কোনো দল গোল করতে না পারলে ২-১ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা।

এই জয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই সেমিফাইনাল নিশ্চিত করল বাংলাদেশ। শুক্রবার টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ডের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তান মুখোমুখি হবে নেপালের। ওই ম্যাচে নেপাল জয় পেলে টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে আফগানিস্তানের। আর ভারত মুখোমুখি হবে নেপালের।

১৬ আগস্ট টুর্নামেন্টের প্রথম ও ১৭ আগস্ট দ্বিতীয় সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। আর ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ১৮ আগস্ট।