বাংলাদেশ ও বিশ্বজুড়ে পরিবেশবান্ধব যানবাহনের প্রচলন

কারমুডি বিশ্লেষণ করা ডাটা অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে অটো মোবাইলের চাহিদা এখন পরিবেশবান্ধব যানবাহন। গাড়ি প্রস্তুতকারীরা তাদের অগ্রাধিকার বদলে ফেলেছে, পরিবেশে যানবাহনের বর্জ্য নির্গমন পদ্ধতি ও নীতি মেনে চলার সঙ্গে সঙ্গে সরকারের নীতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে পরিবেশের উন্নতি করার জন্যও কাজ করছে। উন্নয়নশীল দেশগুলোতে পশ্চিমা দেশগুলোর মত এখনও পরিবেশবান্ধব ও জ্বালানী সঞ্চয়ী গাড়ি পুরো দমে চলা শুরু করেনি তবে ধীরে ধীরে বিশ্বজুড়ে গাড়ি ক্রেতাদের পরিবেশ ও দূষণ নিয়ে সচেতন হতে দেখা যাচ্ছে। কারমুডি তাদের গাড়ির ক্লাসিফাইড ওয়েবসাইটের লাখো লিস্টিং বিশ্লেষণ করা ডাট থেকে খুঁজে বের করে েযে, বাংলাদেশসহ বিশ্বজুড়ে অটো মোবাইলের চাহিদা এখন পরিবর্তন হয়ে পরিবেশবান্ধব যানবাহনের দিকে যাচ্ছে।
কারমুডির খোঁজ অনুযায়ী, বাংলাদেশে গ্যাস চালিত গাড়ির তালিকা ২০১৪ এ চেয়ে এই বছর তুলনামূলকভাবে ৭৫ শতাংশেরও বেশি বেড়েছে। কারমুডি প্ল্যাটফর্মে, বাংলাদেশের গাড়ির তালিকার ২১.৭ শতাংশই হল গ্যাস চালিত গাড়ি।
কারমুডি আরও খুঁজে পেয়েছে মধ্যপ্রাচ্যে, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও কাতার এখনও তাদের এসইউভি এর প্রতি ভালোবাসা ধরে রেখেছে। পরিবেশ বান্ধব (ইকো-ফ্রেন্ডলি) গাড়ির তালিকার সংখ্যা সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৫.৮% ও কাতারে ১.৮৮% তবে ধীরে ধীরে গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে গাড়ি ক্রেতাদের মাঝে পরিবেশবান্ধব গাড়ি একটি আকর্ষণীয় বিকল্প হিসেবে রূপ নিচ্ছে।
শ্রীলঙ্কায়, বিক্রির জন্য তালিকাভুক্ত করা গাড়ির ৪৩.৫ শতাংশ হল পরিবেশবান্ধব গাড়ি এবং এই তালিকার ৯৩ শতাংশ গঠিত হাইব্রিড গাড়ি দিয়ে। শ্রীলঙ্কার হাইব্রিড গাড়ির মার্কেট একচেটিয়াভাবে হোন্ডার ইনসাইট হাইব্রিড মডেল ও টয়োটার প্রিয়াস হাইব্রিড সিনেরজি ড্রাইভ মডেলের পছন্দ দিয়ে চালিত হয়ে আসছে। কারমুডি শ্রীলঙ্কায় ইলেকট্রিক গাড়ির লিস্টিংও বেড়ে উঠছে যার গত ১২ মাসে বৃদ্ধি পেয়েছে ৪%।
এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যে গাড়ি ক্রেতাদের এই পরিবেশ বান্ধব যানবাহনে স্থানান্তরের পরেও, আফ্রিকার দেশগুলোর এখনও এই দলে যোগ দেওয়া বাকি রয়েছে। কারমুডি অনেক কম পরিবেশবান্ধব গাড়ি বিক্রির জন্য তালিকাভুক্ত হতে দেখছে পশ্চিম আফ্রিকা দেশগুলোর প্লাটফর্ম থেকে, যেমন সেনেগাল (০.৭৯%), ঘানা (০.৫৫%), নাইজেরিয়া (০.৩৭%) এবং আইভরি কোস্ট (০.২৬%)। এই ধীর গতির অভিযোজন পূর্ব ও মধ্য আফ্রিকান দেশগুলোর মধ্যেও দেখা গেছে, যেমন ক্যামেরুন (০.৯৭%) ও তানজানিয়া (০.৭০%)।
কারমুডি ধারণা করছে যে আফ্রিকার গাড়িপ্রেমীরা তাদের গ্যাস-চালিত পেট্রলচালিত গাড়ির সঙ্গেই লেগে থাকবে। মধ্যপ্রাচ্যে, পরিবেশবান্ধব প্রবণতা বেড়ে উঠবে যেহেতু সেখানের বহু যুক্তরাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ইলেকট্রিক ও হাইব্রিড গাড়ি ব্যবহার ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে। অন্যদিকে, এশিয়ার পরিবেশবান্ধব ও আরও সাশ্রয়ী গাড়িতে স্থানান্তর করার সম্ভাবনা আছে নিকট ভবিষ্যতে।
২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠার পরে কারমুডি বর্তমানে বাংলাদেশ, ক্যামেরুন, কঙ্গো, ঘানা, ইন্দোনেশিয়া, আইভরিকোস্ট, মেঙ্েিকা, মিয়ানমার, নাইজেরিয়া, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, কাতার, রুয়ান্ডা সৌদিআরব, সেনেগাল, শ্রীলঙ্কা, তাঞ্জানিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ভিয়েতনাম, এবং জাম্বিয়ায় কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এই অনলাইন গাড়ির প্ল্যাটফর্ম ক্রেতা, বিক্রেতা এবং যানবাহন ব্যবসায়ীদের গাড়ি, মোটর সাইকেল এবং বাণিজ্যিক যানবাহন খুঁজে পেতে সাহায্য করে।