যথাসম্ভব দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত

সাবেক ছিটমহলের সাত হাজার ৮০০ পরিবারকে যথাসম্ভব দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি)।
শনিবার সকালে বিআরইবির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মঈন উদ্দিন সংস্থার সারা দেশের মহাব্যবস্থাপকদের সম্মেলনে এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। সকাল নয়টায় রাজধানীর খিলক্ষেতে বিআরইবির প্রধান কার্যালয়ে মহাব্যবস্থাপকদের দুই দিনের এই সম্মেলন শুরু হয়েছে।
সাবেক ছিটমহলের ওই পরিবারগুলোকে বিদ্যুৎসংযোগ দিতে ১৫০ কিলোমিটার নতুন লাইন করতে হবে। এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে কুড়িগ্রাম, নীলফামারী ও লালমনিরহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মহাব্যবস্থাপকদের নির্দেশ দিয়েছেন বিআরইবির চেয়ারম্যান।
বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে স্থলসীমান্ত চুক্তির পর শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে আনুষ্ঠানিকভাবে বিনিময় হয়েছে দুই দেশের মধ্যে থাকা ১৬২টি ছিটমহল। ভারতের ভেতর ৫১টি বাংলাদেশি ছিটমহল ও বাংলাদেশের ভেতর ১১১টি ভারতীয় ছিটমহল বিনিময় হওয়ার ফলে বাংলাদেশের ভেতর থাকা ছিটমহলবাসীরা পেয়েছেন বাংলাদেশের নাগরিকত্ব আর ভারতের ভেতর থাকা ছিটমহলবাসীরা পেলেন ভারতের নাগরিকত্ব।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ভারতের যেসব ছিটমহল এখন বাংলাদেশের মূল ভূখণ্ডে যুক্ত হচ্ছে, সেগুলোর বেশির ভাগের অবস্থান দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে। এসব ছিটমহলের ৫৯টি লালমনিরহাটে, ৩৬টি পঞ্চগড়ে, ১২টি কুড়িগ্রামে ও চারটি নীলফামারীতে। অন্যদিকে ভারতে থাকা বাংলাদেশের ছিটমহলগুলোর ৪৭টি পশ্চিমবঙ্গের কুচবিহারে ও চারটি জলপাইগুড়ি জেলায়। দুই দেশের সরকার এসব লোকজনের জন্য স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ অন্যান্য মৌলিক নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেবে।