বাংলাদেশে আসছেন পুতিন

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের চূড়ান্ত চুক্তির সময় পুতিন ঢাকায় আসতে পারেন।

বাংলাদেশ সফরে আসছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। ঢাকায় নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্দর নিকোলায়েভ একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে গতকাল এ কথা জানান। চলতি বছরেই অনুষ্ঠিতব্য পুতিনের এই সফরের আগ দিয়ে দুই দেশের মধ্যে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুর অগ্রগতি হয়েছে বলেও ওই টেলিভিশন চ্যানেলকে জানিয়েছেন রাষ্ট্রদূত।
রুশ রাষ্ট্রদূত আরও জানান, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের চূড়ান্ত চুক্তির সময় পুতিন ঢাকায় আসতে পারেন।
উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই রাশিয়ার সাথে সম্পর্ক উন্নয়নের পদক্ষেপ নেয় শেখ হাসিনার সরকার। ২০১৩ সালে মস্কো সফর করেন প্রধানমন্ত্রী।
এ সময় রাশিয়ার সঙ্গে অস্ত্র ক্রয়, পরমাণু শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহারে প্রযুুক্তি বিনিময়সহ বেশ কয়েকটি চুক্তি স্বাক্ষর করে বাংলাদেশ। ওই সময়েই রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে আসেন প্রধানমন্ত্রী।
এ ব্যাপারে রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্দর নিকোলায়েভ ওই টেলিভিশন চ্যানেলকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণ ক্রেমলিন গ্রহণ করেছে। রাষ্ট্রপ্রধানের সফরে গুরুত্বপূর্ণ অনেক বিষয়ের চূড়ান্ত মীমাংসা হয়। শেখ হাসিনার মস্কো সফরের পর সম্পর্ক উন্নয়নে অনেক বিষয়ে অগ্রগতি হয়েছে। আরও কিছু বিষয় নিয়ে আমরা আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। প্রেসিডেন্ট পুতিনের সফর নিয়েও আমরা আগ্রহভরে এখন অপেক্ষা করতেই পারি।
ভøাদিমির পুতিন এলে সেটিই হবে রাশিয়ার কোনো প্রেসিডেন্টের প্রথম বাংলাদেশ সফর। তবে এ ব্যাপারে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এখনো অবগত নয় বলে জানিয়েছেন ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র।