ঈদে ওয়ালটনের ফ্রিজ বিক্রিতে রেকর্ড

ঈদ সামনে রেখে এবার রেকর্ড পরিমাণ ফ্রিজ বিক্রি করেছে ওয়ালটন। গত বছরের তুলনায় ৪৫ শতাংশ বেশি বিক্রি হয়েছে ওয়ালটন ফ্রিজ। এরই মধ্যে তাদের বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। সেইসঙ্গে ওয়ালটনের টিভি সেটও বিক্রি হচ্ছে রেকর্ড পরিমাণ। এছাড়া ওয়ালটনের মোবাইল ফোন, এসি এবং হোম অ্যাপ্লায়েন্স বিক্রিও বেড়েছে ব্যাপকহারে।
ওয়ালটনের অপারেটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম জানান, ফ্রিজ টেকনোলজিতে নতুন যুগের সূচনা করেছে ওয়ালটন। ব্যবহƒত হচ্ছে প্রযুক্তির বিস্ময় ন্যানো টেকনোলজি। নিয়মিত গবেষণা এবং সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়ে তৈরি হচ্ছে ওয়ালটন ফ্রিজ। ক্রেতাদের চাহিদার বিষয়টি মাথায় রেখে বড় ডিপযুক্ত ফ্রিজ বানানো হচ্ছে। যেটা আমদানি করা ফ্রিজে নেই। ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে ডিজাইন এবং মানে। অন্যদিকে উৎপাদন বৃদ্ধি এবং ওভারহেড কস্ট কমে যাওয়ায় কমেছে দাম। আফটার সেল সার্ভিস পাওয়া যাচ্ছে হাতের নাগালে। যে কারণে ওয়ালটন ফ্রিজ এখন বলা চলে হট কেক। এছাড়া সিআরটি টিভির প্রায় সমমূল্যে এলইডি টিভি দিচ্ছে ওয়ালটন।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ঈদ-রোজায় বরাবরই বেশি বিক্রি হয় ফ্রিজ টিভি। সারাদেশে ব্যাপকহারে বিক্রি হচ্ছে ওয়ালটনের ফ্রিজ, টিভি, মোবাইলফোনসহ অন্যান্য হোম অ্যাপ্লায়েন্স। এবার রমজানে গরম ছিল বেশি। ফলে রোজা এবং ঈদ সামনে রখে ওয়ালটন ফ্রিজের বিক্রি বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। দাম কমেছে ওয়ালটন টিভির। বিনোদন এবং তথ্য সেবার জন্য টেলিভিশন সেট কেনার ক্ষেত্রেও গ্রাহকদের পছন্দের শীর্ষে এখন ওয়ালটন। সেইসঙ্গে মোবাইল ফোন, এসি, এলইডি ভাল্ব, সুইচ-সকেট ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স পণ্যের ক্ষেত্রেও ওয়ালটনরে চাহিদা ব্যাপক।
ওয়ালটনের মার্কেটিং বিভাগের নির্বাহী পরিচালক এমদাদুল হক সরকার জানান, ঈদুল ফিতরে ওয়ালটনের সব ধরনের পণ্য আশাতীত বিক্রি হয়েছে। ঈদে ফ্রিজ বিক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিলো এক লাখ ২০ হাজার ইউনিট। কিন্তু রমজান শেষ হওয়ার আগেই লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে বিক্রি হয়েছে এক লাখ ৪৭ হাজার। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২৭ হাজার পিস বেশি। বাজারে অনেক ব্র্যান্ড রয়েছে যারা সারা বছরেও এক লাখ পিস বিক্রি করতে পারে না। তিনি আরো বলেন, এবার ঈদের আগে সিআরটির দামে এলইডি টিভি দেয়ার ঘোষণা ক্রেতাদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। ফলে এলইডি টিভি বিক্রিতেও লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে ওয়ালটন। এছাড়া প্রিমো সিরিজের মোবাইলসহ সব ধরনের হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্স পণ্যের বিক্রি বেড়েছে আশাতীতভাবে। তিনি বলেন, গত বছরের তুলনায় এবার ঈদে ওয়ালটন পণ্য বিক্রিতে ৪৫ থেকে ৫২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে।