সোনালী ব্যাংকের মুনাফা বেড়েছে ১৮১ কোটি টাকা

২০১৩ সালের তুলনায় ২০১৪ সালে সোনালী ব্যাংকের নিট মুনাফা বেড়েছে ১৮১ কোটি ৭২ লাখ ৮৫ হাজার টাকা বা ৬২ শতাংশ। মূলধন বাড়ার কারণে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ৫.৮৭ শতাংশ। ব্যাংকটির আর্থিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।
২০১৪ সালে সোনালী ব্যাংকের মুনাফা হয়েছে ৪৭৫ কোটি ৪৩ হাজার টাকা। আগের বছর এ মুনাফার পরিমাণ ছিল ২৯৩ কোটি ৮৫ লাখ ৪৪ হাজার টাকা। তবে আগের বছরের মতো ২০১৪ সালেও গৃহীত ঋণ ও গ্রাহকের ডিপোজিটের ব্যয়ের বিপরীতে ব্যবসায়িক মূল কার্যক্রম ঋণবাবদ খাত থেকে আয় কম হয়েছে। ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরে সোনালী ব্যাংকের পরিশোধিত মূলধন বেড়ে ৩ হাজার ১২০ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। আগের বছর পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ১২৫ কোটি টাকা। অর্থাৎ আগের বছরের তুলনায় ব্যাংকটির মূলধন বেড়েছে ১ হাজার ৯৯৫ কোটি টাকা।
ব্যাংকটি ব্যবসায়িক মূল কর্মকাণ্ড ঋণ খাত থেকে সুদ হিসাবে ২ হাজার ৯৯৭ কোটি ১৬ লাখ টাকা আয় করেছে। এর বিপরীতে গ্রাহকের ডিপোজিট ও গৃহীত ঋণবাবদ সুদ পরিশোধে ব্যয় হয়েছে ৪ হাজার ৩৩১ কোটি ১২ লাখ টাকা। এ ক্ষেত্রে ব্যাংকটি লোকসান করলেও বিনিয়োগকৃত অর্থ, কমিশন ও অন্য পরিচালনবাবদ আয়ের কারণে নিট মুনাফা হয়েছে। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরের হিসাব অনুযায়ী, প্রতিটি ১০০ টাকা মূল্যের শেয়ারে ব্যাংকটি মুনাফা করেছে ৩১.৭২ টাকা করে। আগের বছর এর পরিমাণ ছিল ৩০.৬৪ টাকা। শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৯০.৩২ টাকায়। আগের বছর ছিল তা ছিল ৪৪৩.৪৩ টাকা। সরকারের কাছে ও শেয়ারবাজারসহ বিভিন্ন খাতে সোনালী ব্যাংকের বিনিয়োগের পরিমাণ ৩২ হাজার ৩০২ কোটি টাকা। আর প্রদত্ত ঋণের পরিমাণ হচ্ছে ৩২ হাজার ৫৩২ কোটি টাকা। সোনালী ব্যাংকে গ্রাহকদের ডিপোজিট ও অন্য হিসাবসহ জমা আছে ৭৭ হাজার ৭৯৭ কোটি টাকা। এর মধ্যে ফিক্সড ডিপোজিটবাবদ ৪১ হাজার ৩১৪ কোটি টাকা।