শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ অনলাইনে

দেশের শিক্ষার সার্বিক মানোন্নয়নের লক্ষ্যে শিক্ষকদের অনলাইনে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তাদের দক্ষতা বৃদ্ধির উদ্যোগের অংশ হিসেবে এ পরকিল্পনা নেওয়া হয়েছে।

শিক্ষা সচিব মো. নজরুল ইসলাম খান এ কথা জানিয়েছেন। কুমিল্লা সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজে আয়োজিত শিক্ষার গুণগতমান অর্জনে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষা সচিব জানান, দেশের সব শিক্ষককে ফেস টু ফেস প্রশিক্ষণ প্রদান করা সময় ও অর্থ সাপেক্ষ বিষয়। তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নের ফলে দেশজুড়ে এক বিশাল সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষা খাতেও প্রযুক্তির সর্বচ্চো ব্যবহার করা হবে।

ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম এবং টিকিউআই প্রকল্পের সহায়তায় দেশের সবকটি টিটিসিতে ই-প্রশিক্ষণ রূপরেখা ও ই-লার্নিং কনটেন্ট তৈরী বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠানের কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে।

এসব কর্মশালা থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষকরা নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে অন্যান্য শিক্ষকদেরকে ইন-হাউজ প্রশিক্ষণ প্রদান করবেন। যাতে প্রশিক্ষণের বিষয়টি অপরাপর শিক্ষকদের মাধ্যে ছড়িয়ে পড়ে।

সরকারের রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নে শিক্ষায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহারের লক্ষ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় দেশের প্রায় ২৩ হাজার ৫০০ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসায় মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন করেছে। আইসিটি মন্ত্রণালয় থেকে দেশে এ পর্যন্ত প্রায় ২ হাজার মাল্টিমিডিয়া ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে।

আরও ৩ হাজার মাল্টিমিডিয়া ল্যাব স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে। মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমগুলোর কার্যক্রম নিরবচ্ছিন্নভাবে চালু রাখার উদ্দেশ্যে প্রয়োজনীয় তদারকি ও সহায়তা প্রদানের জন্য ইতোমধ্যে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম চালু করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কুমিল্লা সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজের অধ্যক্ষ পরিমল কান্তি পাল। আরও উপস্থিত ছিলেন, কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কুন্ডু গোপীদাস, এটুআই প্রকল্পের উপদেষ্টা মো: ফারুক আহমেদ, অধ্যাপক কবির আহমেদ, কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো: সানাউল হক, কুমিল্লা সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজের উপাধ্যক্ষ গোলাম ফারুক প্রমুখ।