জাতীয় আয়কর মেলা শেষ ॥ ৬৭৫ কোটি টাকা আদায়

জাতীয় আয়কর মেলা ২০১৪ এ সারাদেশে ৬৭৫ কোটি ৩০ লাখ ৭৩ হাজার ৪৫১ টাকা কর আদায় হয়েছে। কর আদায়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে গত বছরের মেলার তুলনায় ৪৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ। এ বছর মেলায় এসে সেবা নিয়েছেন ৬ লাখ ৪৯ হাজার ১৮৫ জন করদাতা। গত বছরের তুলনায় সেবা নেয়ার পরিমাণ বেড়েছে ২৭ দশমিক ২৫ শতাংশ। এবার নতুন করদাতা হিসেবে নিবন্ধিত হয়েছেন ১৫ হাজার ৯০৭ জন। গত বছরের তুলনায় ২৩ দশমিক ০৪ শতাংশ বেড়েছে। ই-টিআইএন পুনর্নিবন্ধন করেছেন ১০ হাজার ৮৩৮ জন। এবারের মেলায় আয়কর রিটার্ন জমা পড়েছে ১ লাখ ৪৯ হাজার ৩০৯টি। যা গত বছরের তুলনায় ১৩ দশমিক ১০ শতাংশ বেড়েছে।

সোমবার আয়কর মেলার শেষ দিনে সারাদেশে ১ লাখ ৪ হাজর ৫৫২ জন করদাতা সেবা নিয়েছেন। ৩ হাজার ৬৬ জন নতুন করদাতা হিসেবে নিবন্ধিত হয়েছেন। ই-টিআইএন পুনর্নিবন্ধন করেছেন ১ হাজার ৬৪০ জন। মেলায় আয়কর রিটার্ন জমা পড়েছে ৩৪ হাজার ৫৩৯টি। শেষ দিনে আদায় হয়েছে ৩৫৯ কোটি ৮৩ লাখ ২৭ হাজার ১৮৮ টাকা।

মেলায় সেবাদানকারী ব্যাংক দুটি হলো সোনালী ব্যাংক ও জনতা ব্যাংক। সোনলী ব্যাংক মতিঝিল লোকাল শাখার নির্বাহী কর্মকর্তা আবু জাফর মোঃ ছায়েফ উল্লাহ জনকণ্ঠকে জানান, মেলায় ৭ দিনে তাদের শাখায় ৭৬৯৭ ভাউচারের বিপরীতে আয়কর জমা হয়েছে ২ কোটি ৯৫ লাখ ৪৫ হাজার ৮১৪ দশমিক ৮০ টাকা। শুধু শেষ দিনে ১৮৫৯ ভাউচারের বিপরীতে আয়কর জমা হয়েছে ৭১ লাখ ৫৮ হাজার ৭০৮ দশমিক ৯২ টাকা। জনতা ব্যাংক জনতা ভবন শাখার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ফখরুল ইসলাম জনকণ্ঠকে জানান, মেলার শেষ দিনে তাদের শাখায় ৩০৬ ভাউচারের বিপরীতে আয়কর জমা হয়েছে ৩১ লাখ ৫১ হাজার ২৮৩ দশমিক ১৫ টাকা।

সন্ধ্যায় আয়কর মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেন, আয়কর আদায়ে আজকের এই প্রবৃদ্ধির পেছনে রয়েছে অনেকের অবদান। কর আদায় নির্ভর করে সার্বিক পরিবেশের ওপর। তিনি বলেন, জাতি হিসেবে আমরা এই সার্বিক পরিবেশ ধরে রাখতে পারছি না। এতে বাধা দেয়া হচ্ছে। নেতিবাচক পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হচ্ছে। এম এ মান্নান এমপি বলেন, গত ৯ মাস ধরে যে চমৎকার পরিবেশে ছিলাম, তা ব্যাহত করার চেষ্টা চলছে। ব্যবসা বাণিজ্যের প্রবৃদ্ধির আকাশে কালো মেঘ দানা বেঁধেছে। অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) মোঃ বশির উদ্দিন আহমেদ বলেন, মেলা থেকে করদাতা ও কর কর্মকর্তারা অনেক কিছু শিখেছেন। আগামী দিনে তা ধরে রাখতে চাই। ৫ বছরের কর মেলা করদাতাদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করতে পেরেছে।