নবতর প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন কৃষকের হাতে পৌঁছে দিতে রাষ্ট্রপতির আহ্বান

বাংলাদেশের উপযোগী কৃষির নতুন প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন কৃষকের হাতে পৌঁছে দিতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। ৪র্থ এগ্রো বাংলাদেশ মেলা-২০১৪ উপলক্ষে আজ বুধবার এক বাণীতে তিনি এ আহ্বান জানান।
কৃষি মন্ত্রণালয় ও কৃষির সাথে সংশ্লিষ্ট সরকারি-বেসরকারি স্টেক হোল্ডারদের উদ্যোগে ‘৪র্থ এগ্রো বাংলাদেশ মেলা-২০১৪ ও সেমিনার’ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জেনে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন।
বাণীতে রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশ কৃষিপ্রধান দেশ। এ প্রেক্ষাপটে ‘৪র্থ এগ্রো বাংলাদেশ মেলা-২০১৪ ও সেমিনার’-এর প্রতিপাদ্য ‘কৃষিতে উন্নতি, আধুনিক প্রযুক্তি’ খুবই যথার্থ হয়েছে।
রাষ্ট্রপতি বলেন, বর্তমান সরকার দেশের জনগণের খাদ্য নিরাপত্তা বিধানে অঙ্গীকারাবদ্ধ। ক্রমাগত জনসংখ্যা বৃদ্ধি ও জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে স্থিতিশীল খাদ্য নিরাপত্তা অর্জন একটি বড় চ্যালেঞ্জ। শুধু সরকারের একার পক্ষে এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা সম্ভব নয়। এজন্য কৃষি সেক্টরে সরকারি ও বেসরকারি সংস্থায় কর্মরত বিভিন্ন পর্যায়ে প্রযুক্তিবিদদের সমন্বিতভাবে কাজ করে নতুন নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করে কৃষকের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়ে কৃষি উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে।
আবদুল হামিদ বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের দুর্যোগ হতে কৃষিকে রক্ষার জন্য সামগ্রিক ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন ও লাগসই প্রযুক্তি ব্যবহারের পদক্ষেপ গ্রহণ করার এখনই সময়। পরিবর্তিত জলবায়ুজনিত পরিস্থিতির উপযোগী লবণাক্ততা সহনশীল, খরা সহিষ্ণু ও অপেক্ষাকৃত স্বল্প মেয়াদে উৎপাদনক্ষম নতুন নতুন ফসলের জাত উদ্ভাবন ও প্রযুক্তিগত উন্নয়নের মাধ্যমে আমাদের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। জলবায়ুর পরিবর্তনের সাথে খাপ খাইয়ে গড়ে তুলতে হবে কৃষিব্যবস্থাকে।
৪র্থ এগ্রো বাংলাদেশ মেলা-২০১৪ ও সেমিনারে কৃষির নবতর প্রযুক্তি প্রদর্শিত হবে এবং এ সংক্রান্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে বলে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন।