‘লাইক মাদার লাইক ডটার’

মুখে স্মিত হাসি। হাতে একটি ক্ষুদ্রকায় বৃক্ষ। দেখেই বোঝা যায়, সত্যিকারের বৃক্ষ নয় এটি। তবে তারচেয়েও বেশি কিছু, তা-ও সত্যি। জীবনে নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে আসা এক মহীয়সী নারীর অনন্য কীর্তির স্বীকৃতি এটি। পাশেই দাঁড়িয়ে তার কাঁধে হাত রেখে হাসছেন আরেকজন। তিনিও নারী। তার হাতেও শোভা পাচ্ছে একটি স্বীকৃতি-স্মারক। তিনিও জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময় তারুণ্যকে তুচ্ছজ্ঞান করেছেন মানবহিতৈষীতে। সম্পর্কে তারা দুজন মা-মেয়ে। একজন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, অন্যজন তার কন্যা সায়মা হোসেন পুতুল।
নারী ও কন্যাশিশুদের শিা প্রসারে অনন্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ইউনেস্কোর দেওয়া স্মারক ‘পিস ট্রি’ শোভা পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর হাতে। অন্যদিকে অটিস্টিকদের নিয়ে কাজের স্বীকৃতি হিসেবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড হাতে সায়মা হোসেন পুতুল।
গতকাল রোববার বেলা দেড়টার দিকে ফেসবুকে নিজের অ্যাকাউন্টে ছবিটি তুলে ধরেছেন শেখ রেহানার ছেলে রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ববি। ছবিটির নিচে লেখা- ‘লাইক মাদার, লাইক ডটার’। তিনি যথার্থই বলেছেন। ‘যেমন মা তেমন মেয়ে’র এ এক অনন্য নজিরই বটে।