বিশ্বে ভোক্তা আস্থা অর্জনে সেরা ব্র্যান্ডের পুরস্কার পেলো ওয়ালটন


ক্রেতা বা ভোক্তাদের আস্থা অর্জনের ক্ষেত্রে বিশ্বের সেরা ব্র্যান্ডের পুরষ্কার পেলো বাংলাদেশের ওয়ালটন। ওয়ার্ল্ড ব্র্যান্ড কংগ্রেস এবছর ওয়ালটনকে এই এ্যাওয়ার্ডে ভূষিত করে। ৩১ জুলাই বৃহস্পতিবার প্যান প্যাসেফিক, সিঙ্গাপুরে ওয়ালটনের দুই প্রতিনিধির হাতে ওই পুরষ্কার তুলে দেয়া হয়।

ওয়ার্ল্ড ব্র্যান্ড কংগ্রেস বিশ্বব্যাপী ব্র্যান্ড নিয়ে গবেষণা করে থাকে। পুরস্কৃত করে থাকে সেরা ব্র্যান্ডগুলোকে। তাদের গবেষণায় বেরিয়ে আসে বাংলাদেশে খুব দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ওয়ালটন; সেইসঙ্গে ভোক্তা আস্থা অর্জনে তারা সেরা। পণ্যের উচ্চমান, সাশ্রয়ী মূল্য, উত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা ওয়ালটনের মূল বৈশিষ্ট। তবে সেরা ব্র্যান্ড হওয়ার ক্ষেত্রে বিবেচনা করা হয়েছে আইএসও স্ট্যান্ডার্ড সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম, দ্রুত বাজার সম্প্রসারণ, দেশের সিংহভাগ মার্কেট শেয়ার অর্জন, পণ্য রপ্তানি, ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং সর্বোপরি ভোক্তা সন্তুষ্টি।

ওয়ার্ল্ড ব্র্যান্ড কংগ্রেসের ২৩তম গ্লোবাল ব্র্যান্ড এক্সিলেন্স এ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত হয় ওয়ালটন এর নাম। বিশ্বের বিজনেস হাব হিসেবে খ্যাত সিঙ্গাপুরে গত ৩১ জুলাই সন্ধ্যায় এক জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেয়া হয়। ওয়ালটনের পক্ষ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন প্রতিষ্ঠানের পিআর এন্ড মিডিয়া বিভাগের নির্বাহী পরিচালক হুমায়ুন কবীর এবং উপ পরিচালক ফিরোজ আলম। তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন লিঙ্কড ইন এর এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের বিপণন পরিচালক (আইবিএম এর সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান) ভার্জিনিয়া শর্মা এবং বার্কেডিয়া’র কান্ট্রি হেড নেড মুডি।

‘ব্র্যান্ড দ্যাটস লাস্ট ঃ রোল অব সাসটেইনেবিলিটি ইন ইননোভেটিভ ব্র্য্যান্ডিং’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বিশ্বের সেরা ৫০০ ব্র্যান্ডের মধ্যে এই প্রতিযোগিতা হয়। এতে ‘এ্যাওয়ার্ড ফর ব্র্যান্ড এক্সিলেন্স ইন কনজিউমার ডিউরেবলস সেক্টর’ এ শীর্ষস্থান জয় করে নেয় বাংলাদেশের ওয়ালটন।

হুমায়ুন কবীর বলেন, ‘এই পুরস্কার প্রমান করলো আমাদের ওয়ালটন শুধু বাংলাদেশের শীর্ষ এবং জনপ্রিয় ব্র্যান্ডই নয়; বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্র্য্যান্ড। এর অর্থ ওয়ালটন বিশ্বের জনপ্রিয় ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে নিজের অবস্থান তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। এই পুরস্কার আমাদের দায়িত্ব আরো বাড়িয়ে দিলো। পণ্যের উচ্চমানের পাশাপাশি বিশ্বব্যাপী বাজার সম্প্রসারণ এবং বিশ্ব ভোক্তার আস্থা আরো সুদৃঢ় করাই আমাদের লক্ষ্য। ওয়ালটন পরিবার এই শ্রেষ্ঠত্ব এবং সম্মান ধরে রাখার জন্য নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যাবে’।

ফিরোজ আলম বলেন, ‘বিশ্বের সেরা ব্র্যান্ডগুলোর পাশে বাংলাদেশের ওয়ালটনকে দেখে আমি মুগ্ধ। আমার বিশ্বাস এই পুরস্কার ওয়ালটনের প্রতি বিশ্ববাসীর আস্থা আরো বাড়াবে। বিশ্বের শীর্ষ ব্র্যান্ড হওয়ার পথে দৃঢ়ভাবে এগিয়ে যাবে ওয়ালটন’।

বাংলাদেশের ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল পণ্যের প্রায় ৭০ শতাংশ মার্কেট শেয়ার এখন ওয়ালটনের। ফ্রিজ, টিভি, মোবাইল, এয়ারকন্ডিশনার ও মোটরসাইকেলের পাশাপাশি হোম এ্যাপ্লায়েন্স পণ্যে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ওয়ালটন ব্র্যান্ড। এসব পণ্য রপ্তানি হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। উচ্চমানের পণ্য, আইএসও স্ট্যান্ডার্ড সার্ভিস সেন্টার এবং সাশ্রয়ী মূল্যের কারনে বাংলাদেশে ওয়ালটনের জনপ্রিয়তা এখন তুঙ্গে।

উল্লেখ্য, এর আগে নকিয়া ওয়ার্ল্ড ব্র্যান্ড কংগ্রেসের এই এ্যাওয়ার্ড পেয়েছে। এই পুরষ্কারের মাধ্যমে ওয়ালটনও বিশ্বের সেরা ব্র্যান্ডগুলোর কাতারে জায়গা করে নিলো। এছাড়া ওয়ার্ল্ড ব্র্যান্ড কংগ্রেসের এওয়ার্ড জিতেছে হোন্ডা, সিটি ব্যাংক এনএ, টয়োটা, ইনটেল, এলজি, স্যামসাং, ইয়াহোর মতো শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ড।

ক্যাপশন :

১. ‘এ্যাওয়ার্ড ফর ব্র্যান্ড এক্সিলেন্স ইন কনজিউমার ডিউরেবলস সেক্টর’ এর পুরস্কার নিচ্ছেন ওয়ালটনের দুই প্রতিনিধি।
২. ‘এ্যাওয়ার্ড ফর ব্র্যান্ড এক্সিলেন্স ইন কনজিউমার ডিউরেবলস সেক্টর’ এর এ্যাওয়ার্ড সার্টিফিকেট।