প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশের মেয়েরা হারাল দক্ষিণ আফ্রিকাকে

দক্ষিণ আফ্রিকা নারী ক্রিকেট দলকে হারিয়ে এক অবিস্মরণীয় জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। আজ বৃহস্পতিবার শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে প্রোটিয়া মেয়েরা হেরেছে ২ উইকেটের ব্যবধানে। টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করে দক্ষিণ আফ্রিকা মাত্র ৭৫ রানে অলআউট হয়ে গেলে বাংলাদেশ ৩৭.৩ ওভারে পৌঁছে যায় জয়ের লক্ষ্যে। জয়ের বন্দরে পৌঁছতে অবশ্য ৮ উইকেট হারাতে হয় বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলকে।
সকালে টসে জিতে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সালমা দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাট করতে পাঠান। ইনিংসের শুরুতেই মাত্র ৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বড় ধরনের বিপর্যয়ের মুখে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর মারিজানে কাপে ও অধিনায়ক মিগনন ড্যু প্রিজের মধ্যে গড়ে ওঠা ৩৭ রানের জুটি সেই বিপর্যয় কিছুটা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু দলীয় ৪২ রানের মাথায় কাপে, ভান্ডে ও প্রিজে আউট হয়ে গেলে দক্ষিণ আফ্রিকার বড় স্কোরের আশা দুরাশায় পরিণত হয়। পরেরদিকে সাবনিম ইসমাঈল ৯ ও সানি লুইস ১৫ রান করে দলের স্কোর মোটামুটি সম্মানজনক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্ট করেন। কিন্তু মাত্র ৬ রানের ব্যবধানে দক্ষিণ আফ্রিকার নারী ক্রিকেট দল শেষ ৩ উইকেট হারালে ৭৫ রানেই থেমে যেতে হয় তাদের।
বাংলাদেশের মেয়েদের মধ্যে বল হাতে ভয়ঙ্কর ছিলেন খাদিজাতুল কোবরা এবং রুমানা আহমেদ। এই দুই বোলার নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি করেন ৩টি করে উইকেট। ৩টি করে উইকেট নেওয়ার পথে এরা দু’জনই ছিলেন বড্ড কৃপণ। কোবরা ৩ উইকেট নেন মাত্র ৮ রানের বিনিময়ে; রুমানার ৩ উইকেট আসে ১০ রান খরচে।
দক্ষিণ আফ্রিকার দেওয়া ৭৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা একেবারেই ভালো হয়নি। দলীয় আট রানে শারমীন ও সালমার উইকেট হারায় বাংলাদেশ। লতা মণ্ডল তৃতীয় উইকেট জুটিতে আয়শা আক্তার, চতুর্থ উইকেট জুটিতে রুমানা ও পঞ্চম উইকেট জুটিতে ফারজানার সঙ্গে যথাক্রমে ৫, ২০, ১১ ও ১৭ রানে চারটি কার্যকর জুটি গড়ে তোলেন। লতা ৩১ রান করেন। শেষের দিকে তাজিয়ার সঙ্গে রিতু ১২ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশকে জয়ের দিকে নিয়ে যান।