২০১১-১২ অর্থবছরে ১৯ শতাংশ বেশি রাজস্ব আদায়

২০১১-১২ অর্থবছরে আগের বছরের চেয়ে ১৯ শতাংশ বেশি রাজস্ব আদায় হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এনবিআর।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এনবিআর চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, ৩০ জুন শেষ হওয়া ২০১১-১২ অর্থবছরে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৯২ হাজার ৩৭০ কোটি টাকা। আদায় হয়েছে ৯৪ হাজার ৫৮১ কোটি ৩ লাখ টাকা। এ হিসাবে প্রবৃদ্ধি ১৮ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

তিনি বলেন, “রাজস্ব আদায়ের এই প্রবৃদ্ধি সন্তোষজনক বলে আমরা (এনবিআর) মনে করি। নতুন অর্থবছরেও এই বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত থাকবে এবং লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে বলে প্রত্যাশা করছি।”

২০১০-১১ অর্থবছরে মোট রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ ছিল ৭৯ হাজার ৪০৩ কোটি ১১ লাখ টাকা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত অর্থবছরে স্থানীয় পর্যায়ে মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) থেকে সবচেয়ে বেশি রাজস্ব আসে। এ খাত থেকে মোট আদায় হয়েছে ২৮ হাজার ২৩ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২২ দশমিক ৯৬ শতাংশ।

আয়কর থেকে আদায় হয় ২৩ হাজার ৭ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। প্রবৃদ্ধির হার ২২ দশমিক ৭৯ শতাংশ।

আমদানি ও রপ্তানি পর্যায়ে রাজস্ব আদায় হয়েছে ২৭ হাজার ৯৫৯ কোটি ৫৬ লাখ টাকা, প্রবৃদ্ধি ১১ দশমিক ৮২ শতাংশ।

এছাড়া অন্যান্য কর ও শুল্ক আদায় হয়েছে ৪১২ কোটি ৪ লাখ টাকা, প্রবৃদ্ধি ১৫ শতাংশ।

সংবাদ সম্মেলনে এনবিআর চেয়ারম্যান ২০১২-১৩ অর্থবছরের রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের কৌশলও তুলে ধরেন।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “কর ফাঁকি রোধ করা হবে। একইসঙ্গে কর প্রশাসনের দক্ষতা বৃদ্ধি, কর বিভাগের সম্প্রসারণ কার্যক্রম বাস্তবায়নের মাধ্যমে এনবিআরকে শক্তিশালী করা হবে।”

আয়কর, ভ্যাট ও শুল্ক ব্যবস্থাপনাকে ডিজিটালাইজ করা হবে বলেও জানান নাসির উদ্দিন।

২০১২-১৩ অর্থবছরে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে এক লাখ ১২ হাজার ২৫৯ কোটি টাকা। যা গত অর্থবছরের চেয়ে ১৮ দশমিক ৩৬ শতাংশ বেশি।

এরমধ্যে ভ্যাট থেকে ৪০ হাজার ৪০০ কোটি টাকা, আমদানি থেকে ৩৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকা, আয়কর থেকে ৩৫ হাজার ৩০০ কোটি এবং অন্যান্য কর থেকে ৯৫৯ কোটি টাকা আসবে বলে ধরা হয়েছে।