মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে সমস্যার পরও রেমিট্যান্স বেড়েছে

চলতি অর্থবছরের (২০১৪-১৫) ডিসেম্বর মাসে ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে প্রবাসী আয় বা রেমিট্যান্স এসেছে ১৩১ কোটি ২৬ লাখ মার্কিন ডলার। আর এর মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো থেকে এসেছে ৭৪ কোটি ৬৫ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স। আর ইউরোপ-আমেরিকাসহ অন্যান্য দেশ থেকে প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন ৫৬ কোটি ৬১ লাখ মার্কিন ডলার। এদিকে অব্যাহতভাবে জ্বালানি তেলের দাম কমে যাওয়ায় তেলনির্ভর অনেক দেশের অর্থনীতির অবস্থা দুর্বল হচ্ছে। তবে তাতে রেমিট্যান্স আয়ে তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি। ফলে এসব এলাকা থেকে রেমিট্যান্স বেড়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতার, ওমান, বাহরাইন, কুয়েত, লিবিয়া ও ইরান থেকে ডিসেম্বর মাসে রেমিট্যান্স এসেছে ৭৪ কোটি ৬৫ লাখ মার্কিন ডলার, যা আগের মাসের তুলনায় নয় কোটি ৩৫ লাখ মার্কিন ডলার বেশি। অন্যদিকে ইউরোপ-আমেরিকাসহ অন্যান্য দেশ যেমন-যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, জাপান, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, ইতালি, দক্ষিণ কোরিয়া, হংকং প্রভৃতি দেশ থেকে রেমিট্যান্স এসেছে ৫৬ কোটি ৬১ লাখ মার্কিন ডলার, যা আগের মাসের তুলনায় ৭ কোটি ৬৭ লাখ মার্কিন ডলার বেশি। অর্থাত্ প্রবাসী বাংলাদেশিদের পাঠানো রেমিট্যান্স সব জায়গা থেকেই বেড়েছে। আর বরাবরের মতোই সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছে সৌদি আরব থেকেই। দেশটি থেকে এবার রেমিট্যান্স এসেছে ২৭ কোটি ৩৬ লাখ মার্কিন ডলার। দেশটি থেকে আগের মাসে রেমিট্যান্স এসেছিল ২২ কোটি ২৪ লাখ ডলার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে। এখান থেকে আসা রেমিটেন্সের পরিমাণ ২২ কোটি ৬০ লাখ ডলার। আগের মাসে এদেশ থেকে এসেছিল ২০ কোটি ২৫ লাখ ডলার। এর পরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান। দেশটি থেকে রেমিট্যান্স এসেছে ২৩ কোটি ১৬ লাখ ডলার, যা আগের মাসের তুলনায় তিন কোটি ৯৪ ডলার বেশি। এর পরে রেমিট্যান্স বেশি এসেছে যেসব দেশ থেকে সেগুলোর মধ্যে মালয়েশিয়া, কুয়েত, ওমান, যুক্তরাজ্যসহ অন্য দেশগুলো অন্যতম।